গলাকাটা লাশটি মানিকের বলে দাবী পরিবারের

প্রকাশ:| রবিবার, ২৯ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ায় উদ্ধারকৃত কিশোরের গলাকাটা লাশটি উজানটিয়া ইউনিয়নের সুতাচোরা ঠান্ডারপাড়া এলাকার মোক্তার আহমদের পুত্র যুবলীগ নেতা সেকান্দরের ভাই মো: মানিকের বলে দাবী করেছে পরিবার। পরিবারের পক্ষ থেকে মোক্তার আহমদের স্ত্রী জিগারা বেগম এ দাবী করেন।

বৃহস্পতিবার(২৬অক্টোবর) লাশটি বারবাকিয়ার বারাইয্যাকাটার ধানখেত থেকে উদ্ধার দ্রুত বেওয়ারিশ হিসাবে দাফন করে ফেলায় শনিবার কক্সবাজার গিয়েও পরিবার লাশটি দেখে সনাক্ত করতে পারেনি। তবে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে ছবি দেখে ছেলেটি তাদের বলে নিশ্চিত হয়েছেন বলে জানান তারা।
এদিকে জিগারা বেগম পুলিশকে জানিয়েছেন, উদ্ধার হওয়া লাশটি তাদের ছেলে মানিকের। কেন তাকে এ ভাবে নির্মম ও নিষ্টুরভাবে খুন করা হয়েছে এ সম্পর্কে কোন বক্তব্য দিতে পারেননি পুলিশকে।
পরিবার থেকে জানিয়েছেন, সদর ইউনিয়নের জালিয়াখালী এলাকায় তার খালা দিলোয়ারার বাড়িতে থাকতেন। সেখানে খালুর সাথে মাছ শিকারের কাজ করতেন। চলতি বছরের ঈদুল ফিতরের কয়েকদিন পর থেকে খালার বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন মানিক। সর্বশেষ গত ২৬ অক্টোবর বারবাকিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম পাহাড়িয়াখালী বিলের ধান খেত থেকে দুপুরে পেকুয়া থানা পুলিশ গলাকাটা অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে। শনিবার (২৮ অক্টোবর) কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে গেলে তারা জানাই লাশটি দাফন করা হয়েছে। যার কারণে লাশটি তাদের দেখাইনি। এ বিষয়ে তারা আইনের আশ্রয় নিচ্ছেন বলে জানান।


আরোও সংবাদ