পেকুয়ায় অস্ত্রের মহড়া দিয়ে লবণ লুটের চেষ্টা: ২০ রাউন্ড গুলি বর্ষণ, এলাকায় আতংক

প্রকাশ:| বুধবার, ২ এপ্রিল , ২০১৪ সময় ০৭:৫৩ অপরাহ্ণ

মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, পেকুয়া থেকে
কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় দিনে-দুপুরে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া দিয়ে গুলি বর্ষণ করে কৃষকদের বিপুল পরিমাণ লবণ লুটের চেষ্টা চালিয়েছে অস্ত্রধারী দৃর্বৃত্তরা। এসময় কয়েক’শ লবণ চাষী জড়ো হয়ে তাদের বাধা দিলে অস্ত্রধারী দূর্বৃত্তরা ১৫-২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পেকুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, বুধবার সকাল ১০টার দিকে পেকুয়া উপজেলার দূর্গম রাজাখালী ইউনিয়নের সবুজ বাজার এলাকায়। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় লবণ চাষী নুরুল হোসেন, নুরুল আলম, তজল করিম, আব্বাস উদ্দিন জানান, সবুজ বাজার এলাকায় তাদের লবণ মাঠে প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে এসে বহু মামলার আসামী আনসারের নেতৃত্বে শাহাদাত, বাচ্চু, নুরুচ্ছবি, কালা আজিজ, রাবউল আলমসহ আরো ১৫-২০ জন দূর্বৃত্ত লবণ লুঠের চেষ্টা চালায়। পরে আশেপাশের কয়েক’শ লবণ চাষী জড়ো হয়ে দৃর্বৃত্তদের লবণ লুঠে বাধা দেয়। এসয়ম অস্ত্রধারীরা ১৫-২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে পালিয়ে যায়। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। এদিকে সকাল ১১টার দিকে খবর পেয়ে পেকুয়া থানার এস আই রেজাউল করিম চৌধুরী ও এসআই মকবুল হোসেন একদল পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেও অস্ত্রধারীরা পালিয়ে যায়। অস্ত্রধারী কাউকে পুলিশ আটক করতে পারেনি।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার স্থানীয় রাজাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজুরুল ইসলাম সিকদার বাবুল জানিয়েছেন, প্রায় সময় কারণে-অকারণে স্থানীয় লবণ চাষীদের উৎপাদিত লবণ লূঠের চেষ্টা চালায় দূর্বূত্তরা।
পেকুয়া থানার এস আই রেজাউল করিম চৌধুরী জানিয়েছেন, পেকুয়ার রাজাখালী অস্ত্রের মহড়ার খবর পেয়ে অভিযান চালানো হয়েছে। পুলিশ অস্ত্রধারীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।
হাফিজ জুট মিলস সিবিএ নির্বাচনে বিএনপি


আরোও সংবাদ