পৃথক ঘটনায় স্কুল ছাত্র, গার্মেন্টস কর্মী ও এক বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:২৫ অপরাহ্ণ

ভাসতে থাকা তরুণীর লাশ ২নগরীর সিইপিজেড থানার তিনটি এলাকা থেকে পৃথক ঘটনায় স্কুল ছাত্র, গার্মেন্টস কর্মী ও এক বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়।

তিনজনের মধ্যে স্কুল ছাত্র ও নারী গার্মেন্টস কর্মী আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশ নিশ্চিত হয়েছে। বৃদ্ধার লাশটি গলিত অবস্থায় উদ্ধার করায় তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে পুলিশ নিশ্চিত হতে পারেনি।

ইপিজেড থানার ওসি আবুল মনছুর বলেন, ‘বৃহস্পতিবার দুপুরে সিইপিজেডের সামনে পোশাক কারখানায় এক কর্মী ও এক স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়। তারা দুজনই আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। একই সময়ে এক বৃদ্ধার গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।’

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নগরীর সিইপিজেডের সামনে সিরাজ এন্ড সন্স নামে একটি পোশাক কারখানায় মনসুর আলী (৩২) ও তার স্ত্রী জ্যোৎস্না বেগম (২৪) চাকুরি করেন। বৃহস্পতিবার সকালে কারখানাতেই দু’জনের মধ্যে ঝগড়া হতে দেখেন সহকর্মীরা। এরপর দুপুরে জ্যোৎস্না বেগম কারখানার চতুর্থ তলায় বাথরুমে ঢুকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। কারখানা থেকে থানায় খবর দেয়ার পর পুলিশ বিকেল ৩টার দিকে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। জ্যোৎস্নার বাড়ি নোয়াখালীর সেনবাগ এলাকায় এবং তার স্বামী মনসুরের বাড়ি সিলেটের মৌলভীবাজার এলাকায়।

পুলিশ সূত্র জানায়, সিইপিজেড থানার সিমেন্ট ক্রসিং এলাকায় স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র রিয়াদ (১১) বাসার ভেতর গলায় ওড়না জাতীয় কাপড় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার বাবা মো. রিপন পেশায় রিক্সাচালক এবং মা গার্মেণ্টস কর্মী। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রিয়াদের মা-বাবা বাসা থেকে কাজের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যায়। দুপুর আড়াইটার দিকে রিয়াদের মামা ওই বাসায় এসে দেখতে পায়, সে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে। তার আত্মহত্যার কোন কারণ জানাতে পারেননি পুলিশ কর্মকর্তারা।

পুলিশ সূত্র আরো জানায়, নগরীর সিইপিজেড থানার রুবি সিমেন্টের অদূরে নালার ভেতর থেকে দুর্গন্ধ ছড়াতে দেখে স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থলে তল্লাশি করে আনুমানিক ৬০ বছর বয়সী এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে। লাশটি প্রায় গলিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তার হাতে কিছু টাকা আছে এবং পরণে কালো রংয়ের থামি জাতীয় কাপড় আছে। ওই মহিলার মাথার প্রায় সব চুল পাকা বলে জানা গেছে।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (বন্দর) মনজুর মোর্শেদ জানান, তিনটি লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তিনটি অপমৃত্যু মামলা হবে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশগুলো চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।