পাল্টা প্রস্তাব দিতে পারে বিএনপি

প্রকাশ:| শনিবার, ১৯ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

bnp-flag বিএনপিনির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে পাল্টা প্রস্তাব দিতে পারে বিএনপি। এছাড়া দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কর্মকান্ডে বাধা দিলে হরতাল ও অবরোধ দিতে পারে দলটি।
আজ শনিবার রাতে দলটির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নির্বাচনকালীন সরকারের প্রস্তাব ও ২৫ অক্টোবরের ঢাকায় সমাবেশ নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে এসব সিদ্ধান্ত হয় বলে জানা গেছে।
বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবকে নাকচ করার সিদ্ধান্ত হলেও নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে পাল্টা রূপরেখা চূড়ান্ত করতে পারেনি দলটি। বৈঠকে ২৫ অক্টোবর ঢাকায় সমাবেশে করতে দেওয়া না হলে অবরোধ দেওয়ার প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যদের কয়েকজন বলেছেন, নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধানকে অবশ্যই ‘নির্দলীয়’ হতে হবে। এ থেকে বিএনপি সরবে না। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ওই সরকারের প্রধান হিসেবে মানার কোনো প্রশ্নই আসে না। তাই প্রধানমন্ত্রী যে প্রস্তাব দিয়েছেন তা মানবে না বিএনপি।
তাঁরা বলেছেন, প্রধান ব্যক্তি নির্দলীয় হলে অন্যদের ব্যাপারে ছাড় দিতে বিএনপির কোনো আপত্তি নেই। সেক্ষেত্রে নির্বাচনকালীন সরকারের উপদেষ্টা বা ব্যক্তিরা বর্তমান জাতীয় সংসদদের সদস্য হতে পারেন। প্রয়োজনে তারা সাংসদ পদ থেকে পদত্যাগ করে সরকারে অংশ নিতে পারেন।
প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের বিপরীতে বিএনপির প্রস্তাব দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তুলে ধরবেন। রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে সোমবার এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে পারে।

গতকাল শনিবার রাত আটটার দিকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সভাপত্বিতে গুলশান কার্যালয়ে দলটির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারনী ফোরাম স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মাহবুবুর রহমান, আ স ম হান্নান শাহ, আবদুল মইন খান, মির্জা আব্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।