পার্বত্য চট্টগ্রাম ফুটবললীগ সম্প্রীতি বান্দরবান দল চ্যাম্পিয়ন

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২ ডিসেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:২০ অপরাহ্ণ

বান্দরবান প্রতিনিধি ॥
বান্দরবানে পার্বত্য চট্টগ্রাম ফুটবললীগে সম্প্রীতি বান্দরবান দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রধান অতিথি হিসেবে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বিরেন সিকদার এমপি আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী দলের মাঝে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি বিতরণ করেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি, বান্দরবান সেনা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রীগেডিয়ার জেনারেল নকিব আহমেদ চৌধুরী, জেলা প্রশাসক কেএম তারিকুল ইসলাম, জেলা পুলিশ সুপার দেবদাস ভট্টাচার্য, সেনা মেডিক্যাল কোরের কমান্ডার লে: কর্নেল এম সাখাওয়াত হোসেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সেক্রেটারী ইসলাম বেবী, লীগ আয়োজন কমিটির সদস্য সচিব লক্ষি পদ দাশ’সহ ক্রীড়াঙ্গনের সঙ্গে সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা স্টেডিয়ামে লীগের ফাইনাল খেলায় সম্প্রীতির বান্দরবান দল এবং জেলা পুলিশ দল পরস্পরের মোকাবেলা করেন। খেলার প্রথমআর্ধে দু’দলই একটি করে গোল করে খেলায় টান টান উত্তেজনা তৈরি। দ্বিতীয়য়ার্ধের শেষ মুহুর্তে সম্প্রীতি বান্দরবান দলের ৭ নাম্বার জার্সি পরিহিত বিদেশী খেলোয়ার গোল করে এগিয়ে নিয়ে যায়। ফলে সম্প্রীতি বান্দরবান ২-১ গোলে জেলা পুলিশ দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়।
সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বিরেন সিকদার এমপি বলেন, বাংলাদেশ এখন গরীব রাষ্ট্র নয়। ক্রীড়াঙ্গন’সহ সর্বক্ষেত্রে বাংলাদেশ স্বনির্ভর হয়ে উঠছে। খেলাধূলায় পার্বত্যাঞ্চলের ছেলে-মেয়েরাও আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে কৃতিত্ব দেখিয়েছে। তিনি বলেন, ক্রীড়ার বিকাশে বান্দরবান স্টেডিয়াম’কে স্বয়ং সম্পূর্ণ একটি পরিপূর্ন স্টেডিয়ামে রুপান্তরিত করা হবে। স্টেডিয়াম প্যাভেলিয়াম, গ্যালারি এবং মাঠ সংস্কার ক্রীড়াঙ্গনের উন্নয়নে সব ধরণের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে। পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে আন্তরিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ক্রীড়াঙ্গনেও উন্নয়নের সেই ধারা অব্যাহত রাখা হবে।
প্রসঙ্গত: গত ত্রিশ অক্টোবর জেলা স্টেডিয়ামে পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় ফুটবললীগ আরম্ভ হয়। লীগে জেলার দশটি দল অংশ নেয়।