পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড অফিসের সামনে রাবার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে

প্রকাশ:| বুধবার, ৯ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:৫৩ অপরাহ্ণ

বকেয়া বেতন ও রাবারের ন্যায্য মূল্যের দাবিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড অফিসের সামনে রাবার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উত্তেজিত শ্রমিকরা ব্যবস্থাপকের চেয়ার টেবিল ভাঙচুর করে এবং কয়েক’শ উপজাতি রাবার শ্রমিক অফিস ঘেরাও করে রাখে।

এসময় তারা বকেয়া বেতন ও বারারের ন্যাযমুল্যের দাবিতে স্লোগান দেয় এবং অফিসের আসবাবপত্রসহ ভাঙচুর করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয়রা জানায়, সিএইচটিডিবি’র বান্দরবান শাখার ব্যবস্থাপক মঙ্গলবার সকাল থেকে অফিসে বেতনের জন্য আসা শ্রমিদের দিনভর বসিয়ে রেখে সন্ধ্যায় অ্যাকাউন্টে টাকা নেই বলে বুধবার যোগাযোগ করতে বলেন।

এভাবে শ্রমিকদের দিনের পর দিন বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলেও অদ্যাবধি তা পরিশোধ না করার ক্ষুদ্ধ শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এ প্রসঙ্গে রাবার শ্রমিক সবুজ চন্দ্র তংঞ্চঙ্গ্যা ও ধুমেন তংঞ্চঙ্গ্যা বাংলানিউজকে অভিযোগ করে বলেন, আমরা রাবারের ন্যাযমূল্য পাচ্ছিনা। দীর্ঘদিন ধরে রাবারের ন্যায্য মূল্য পরিশোধের জন্য অনুরোধ করে আসছি। কিন্তু উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ আমাদের দাবি মেনে নেয়নি। এক সপ্তাহ ধরে বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলেও আমরা দিনের পর দিন অফিসে আসা যাওয়াই করছি।

এ বিষয়ে ব্যবস্থাপক অমিয় কান্তি রোয়াজ বাংলানিউজকে জানান, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভূমি বন্দোবস্তি প্রকল্পের আওতায় ১০টি ইউনিটে ৫ শতাধিক পরিবারকে পূণর্বাসন করা হয়। এসব পরিবারের মধ্যে ৩৫৭ জন বারার শ্রমিক (টেপার) বর্তমানে কাজ করছেন। প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে ট্রাষ্ট ব্যাংক, বান্দরবান শাখার মাধ্যমে তাদের নিয়মিত বেতন দিয়ে আসছে কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরো জানান, ট্রাষ্ট ব্যাংক খাগড়াছড়ি শাখা হতে টাকা আসতে বিলম্ব হচ্ছে। এ ব্যাপারে শ্রমিকদের জানানো হলেও তারা উত্তেজিত হয়ে অফিসক্ষ ভাঙচুর চালায়।