পানি চলাচলের পথে মাটি ভরাট করছে একটি মহল

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি , ২০১৮ সময় ০৬:৩৭ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম রাউজান ঃ রাউজান পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম রাউজান ফতেহ আলী চৌধুরী বাড়ী, হেদু মিয়া চৌধুরী বাড়ী, চৌধুরী বাড়ী, কালু সওদাগর বাড়ী,রাউজান খাদ্য গুদাম, রাউজান সুরেশ বিদ্যায়তন, ঢেউয়া পাড়া, বাইন্যা পুকুর, আমির মোহাম্মদ চৌধুরী বাড়ী, কিশোরী বাপের বাড়ী সহ পশ্চিম রাউজান এলাকার পাচঁ শতাধিক পরিবারের বসত ভিটা ও বাজারের পানি চলাচলের শত শত বৎসরের পুরাতন পথ রাউজান সাহেব বিবি সড়কের অতলা নামক স্থান । সাহেব বিবি সড়কের অতলা নামক স্থানে পানি চলাচলের পথে সাহেব বিবি সড়কের উপর একটি ব্রীজ নির্মান করা হয়েছে গত ২০ বৎসর পুর্বে । বর্সার মৌসুমে বৃষ্টি হলে পাচঁ শতাধিক পরিবাররে বসতঘরের পানি ও পাহাড়ী ঢলের শ্রোতের পানি সাহেব বিবি সড়কের অতলা ব্রীজের নিচ দিয়ে চলাচল করে । শত শত বৎসরের পুরাতন পানি চলাচলের ব্রীজের নিচের অংশে রাউজানের হরিশখান পাড়া এলাকার মোজ্জামেল হক খোকন নামে এক ব্যক্তি মাটি ভরাট করে আবাসিক ভবনের প্লট তৈয়ার করছে । এলাকার লোকজন ও বাসিন্দ্বারা জানান শত শত বৎসরের পানি চলাচলের পথ মাটি ভরাট করার আগামী বর্ষার মৌসুমে পাচঁ শতাধিক পরিবারের বসতঘর, এলাকার ফসলী জমি, মাছ চাষের পুকুর, রাউজান খাদ্য গুদাম, রাউজান সুরেশ বিদ্যায়তন সহ এলাকার মানুষের চলাচলের সড়ক পানিতে ডুবে গিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশংকা রয়েছে । পানি চলাচলের পথ মাটি ভরাট করায় বর্ষার মৌসুমে সাহেব বিবি সড়ক, হেদু মিয়া চৌধুরী সড়ক, কিশোরী বাপের বাড়ী সড়ক, রামধন সড়ক, পানিতে ডুবে গিয়ে সড়ক বিধস্থ হওয়ার আশংকা করছেন এলাকার লোকজন । রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর এডভোকেট দিলিপ কুমার চৌধুরী জানান, সাহেব বিবি সড়কের উপর অতলা ব্রীজের নিচ দিয়ে পানি চলাচলের পথ মাটি ভরাট করায় বর্ষার মৌসুমে এলাকার মধ্যে জলবদ্বতা সৃষ্টি হয়ে এলাকার মানুষের বসতঘর, ফসলী জমি পানিতে ডুবে যাবে । মাটি ভরাট করা পানি চলাচলের পথটি আমার এলাকার সীমনায় রাউজান ইউনিয়নের মধ্যে হওয়ায় আমি কিছু বলতে পারেনি । জমি ভরাট কারী ম্ােজ্জামেল হক খোকন জানান, মাটি ভরাট করা জমিটি আমরা সুলতানপুরের জামাল থেকে ক্রয় করেছি । এটা খতিয়ানভুক্ত জমি । জমির পার্শ্বে পানি চলাচলের পথ পানি চলাচলের জন্য উম্মুক্ত রাখা হবে । এব্যাপারে রাউজান উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি জোনায়েদ কবির সোহাগকে ফোন করে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি চট্টগ্রামে জেলা প্রশাসকের কার্যলয়ে সভায় রয়েছি । আমি খোজ নিয়ে তদন্ত করে পানি চলাচলের পথ মাটি ভরাটকারীর বিরুদ্বে ব্যবস্থা নেব ।