পাকিস্তানের সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে চীন

প্রকাশ:| শনিবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:৫০ অপরাহ্ণ

পাকিস্তানের সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে চীনভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) সম্প্রতি জানতে পেরেছে, জম্মু ও কাশ্মীরের সীমান্তে রাজোরি সেক্টরের উল্টো পাশে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে চীনের সেনাবাহিনী। জম্মু ও কাশ্মীরের বিধানসভা ভোটে নাশকতার উদ্দেশ্যে জঙ্গি অনুপ্রবেশ করানোর পরিকল্পনাও করা হচ্ছে বলে জানতে পেরেছে বিএসএফের গোয়েন্দা শাখা।

শনিবার ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার ওয়েবভার্সনে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিএসএফ-এর গোয়েন্দা শাখার রিপোর্ট অনুসারে, আন্তর্জাতিক সীমান্তে রাজোরি সেক্টরের ঠিক বিপরীত দিকে চীনা সেনাবাহিনী পাক সেনাদের অস্ত্র চালনার কৌশল সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। বিএসএফের গোয়েন্দা শাখার ওই রিপোর্ট উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, পাকিস্তানের অগ্রবর্তী ঘাঁটিগুলিতে এই সামরিক প্রশিক্ষণের কাজ চলছে। এই ঘাঁটিগুলোতে সাধারণত মোতায়েন থাকে পাক রেঞ্জার্স। প্রাপ্ত তথ্যের প্রাথমিক বিশ্লেষণে বিএসএফ জানতে পেরেছে, শ্রীগঙ্গানগর সেক্টরের বিপরীতে সীমান্তের ওপারে বেশ কিছু চৌকির নিয়ন্ত্রণ আধা সামরিক বাহিনী রেঞ্জার্সদের জায়গায় পাক সেনার কিছু বিভাগের হাতে চলে গিয়েছে। পাঞ্জাবের আবোহার ও গুরুদাসপুর সেক্টরের ওপারে সীমান্তে বেশ কিছু জায়গায় সাম্প্রতিক অতীতে নতুন পর্যবেক্ষণ টাওয়ার বসানো হয়েছে বলে জানতে পেরেছে বিএসএফ।

প্রতিবেদনটিতে আরো বলা হয়েছে, গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুসারে, টেলিফোনে কথাবার্তার রেকর্ড বিশ্লেষণ করে জানা গিয়েছে, পাক সেনা ও রেঞ্জার্স ভারতীয় সেনা ও সম্পত্তিকে নিশানা বানানোর জন্য সামরিক দিক থেকে কৌশলগত স্থান ও চৌকিগুলোতে স্নিপার ও শার্প শুটারদের মোতায়েন করার পরিকল্পনা করছে। আন্তর্জাতিক সীমান্ত ও নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর কিছু বাছাই করা স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে পাক সেনাবাহিনীর বিশেষ স্কোয়াড। ওই স্কোয়াড ভারতীয় এলাকায় অভিযান চালানোর চেষ্টা করতে পারে।

পাশাপাশি তেহরিক-ই-তালিবান ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে জঙ্গি মোতায়েন করছে বলেও ওই প্রতিবেদনে বিএসএফের রিপোর্টের সূত্র ধরে বলা হয়েছে।