পশ্চিমবঙ্গে প্রতীকী শহীদ মিনার বানিয়ে শ্রদ্ধা

প্রকাশ:| রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি , ২০১৬ সময় ১০:২৪ অপরাহ্ণ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মধ্যমগ্রামে প্রতীকী শহীদ মিনার বানিয়ে সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন সেদেশের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার বাঙালিরা। আগামী একুশে ফেব্রুয়ারির আগে মধ্যমগ্রামে একটি স্থায়ী শহীদ মিনার তৈরির ঘোষণা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের খ্যাতিমান শিল্পপতি রতন কান্তি ধর।

পশ্চিমবঙ্গে প্রতীকী শহীদ মিনার বানিয়ে শ্রদ্ধাশনিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টায় মধ্যমগ্রাম পৌরসভা প্রাঙ্গণে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মাস্টারদা সূর্য সেন ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ও চট্টগ্রাম পরিষদ, বারাসাত আঞ্চলিক শাখার সভাপতি শিল্পপতি রতন কান্তি ধর।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি খ্যাতিমান নাট্যজন প্রবীর ‍গুহ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম পরিষদ, বারাসাত আঞ্চলিক শাখার সাধারণ সম্পাদক শিল্পপতি সুভাষ দত্ত, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নিরুপম দাশগুপ্ত, রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর শামীমুল ইসলাম চৌধুরী শামু, অ্যাডভোকেট শুভাশীষ গুহ, অ্যাডভোকেট অর্পণ ভট্টাচার্য, অ্যাডভোকেট যীশু দে, সমীর দাশ, প্রদীপ দাশ, তুষার ধর, দেবাশীষ চৌধুরী নুপুর, অলক সেন গুপ্ত, সাহিত্যিক প্রবীর গুহ এবং তরুণ দে।

সভায় শিল্পপতি রতন কান্তি ধর বলেন, আগামী ২১ ফেব্রুয়ারির আগেই আমি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে মধ্যমগ্রামের যে কোন প্রধান এলাকায় একটি শহীদ মিনার স্থাপন করব।

সভায় বক্তারা বলেন, আজকাল অনেক অভিভাবকরা সন্তান ইংরেজি কিংবা হিন্দি ভাষায় কথা বললে গর্ববোধ করেন। নিজের প্রয়োজনে ভিনদেশি ভাষা শিখতে হবে। কিন্তু নিজের মাতৃভাষাকে ভুলে গিয়ে নয়। ক‍ারণ মায়ের ভাষা সুমধুর।

অনুষ্ঠানে প্রতীকী শহীদ মিনার তৈরি করে শহীদ বেদিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এরপর অংশগ্রহণকারীদের নগ্ন পায়ে মধ্যমগ্রাম পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।