পদ্মা নদীতে ঝাকে ঝাকে ইলিশ

প্রকাশ:| সোমবার, ১৯ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ০৮:১৩ অপরাহ্ণ

ইলিশ শিকার১রাজশাহীর পদ্মা নদীতে বিগত কয়েক বছরে ইলিশ মাছের তেমন একটা দেখা মেলেনি। তবে ২০১৪ সাল থেকে এ অঞ্চলের জেলেদের জালে ধরা পড়তে শুরু করে ইলিশ। গত বছরের তুলনায় এবার নদীতে ইলিশের পরিমাণ আরও বেড়েছে বলে জানিয়েছেন জেলেরা।

মৎস্য আইন চালু হওয়ার পর ইলিশ শিকার বন্ধ মওসুমে নদীতে প্রশাসনের কঠোর নজরদারি থাকায় মা ইলিশ উজান বেয়ে রাজশাহীর পদ্মায় আসতে পেরেছে। আর এ কারণেই জেলেদের জালে ধরা পড়ছে ইলিশের ঝাঁক।

রাজশাহী মৎস্য সম্পদ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, মৎস্য আইন প্রয়োগ ও মেনে চলার কারণে পদ্মায় ইলিশের দেখা মিলতে শুরু করেছে। গত মওসুমেই পদ্মায় ইলিশের দেখা পাওয়ায় মৎস্য বিভাগ পদ্মায় নজরদারি বাড়িয়েছিল। ওই মওসুমে রাজশাহীর বাঘা ও চারঘাটে ৮০ থেকে ৯০ হাজার মিটারের বেশি কারেন্ট জালও ধ্বংস করা হয়।

সাধারণত আশ্বিনের ভরা পূর্ণিমার আগের ও পরের ১৫ দিনকে ইলিশের প্রজনন মওসুম হিসেবে ধরা হয়। এ সময়ে মা ইলিশ সাগরের লোনা পানি ছেড়ে নদীর মিঠাপানিতে এসে ডিম ছাড়ে। ২০১৪ সালের মতো এবারও কেউ যাতে জাটকা শিকার না করে এ বিষয়ে মৎস্য বিভাগ বাজারে সতর্কীকরণ ব্যানার ও লিফলেট বিতরণ করে।

নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে মা ইলিশ শিকারগত বছরের মতো এবারও গোদাগাড়ী উপজেলার সারাংপুর, রেলবাজার, মাটিকাটা ভাটা, হরিশঙ্করপুর, প্রেমতলী, পিরিজপুর, খরচাকা, পবা উপজেলার মাজারদিয়া, নবগঙ্গাসহ বাঘা ও চারঘাটের বিভিন্ন এলাকার জেলেদের জালে ইলিশ ধরা পড়ছে।

রাজশাহী জেলা মৎস্য কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী জানান, ২০১৪ সাল থেকে রাজশাহীর পদ্মায় ইলিশের দেখা মিলে। এ বছর পরিমানটা আরও বেশি। নিষিদ্ধ মওসুমে কেউ যাতে জাটকা ও মা ইলিশ শিকার না করে এ বিষয়ে সীমিত জনবল নিয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এখন জেলেদের জালে ইলিশ ধরা পড়ছে। আর সেই ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে রাজশাহীর বাজারে।