পদদলনের ঘটনা তদন্তে কমিটি

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর , ২০১৭ সময় ১২:১০ অপরাহ্ণ

মেজবানে পদদলিত হয়ে হতাহতের ঘটনার কারণ উদঘাটনে পাঁচ সদসস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্য তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মাশহুদুল কবীরকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির সদস্যরা হলেন- ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. হুমায়ুন কবির, নগর পুলিশের চকবাজার জোনের সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমা, গণপূর্ত উপ বিভাগের প্রকৌশলী এসএম শাহরিয়ার নেওয়াজ এবং ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।

ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত শেষে প্রতিবেদন আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে জমা দিতে কমিটিকে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসনের স্টাফ অফিসার রমিজ আলম।

এদিকে, তদন্ত হলেই পদদলনের ঘটনার কারণ জানা যাবে বলে মনে করেন প্রয়াত মহিউদ্দিন চৌধুরীর বড়ছেলে মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

তিনি বলেন, অসাবধানতাবশত এই ঘটনা ঘটনা ঘটেছে কিনা তা আমরা জানতে চাই। সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করলেই তা জানা যাবে।
নওফেল বলেন, রীমা কমিউনিটি সেন্টারে আগেও অনেক মেজবান হয়েছে। তখন কিছু হয়নি। আমর পরিবারের পক্ষেও অনেকবার মেজবানের আয়োজন করা হয়েছে কখনও এমনটি ঘটেনি।

‘তদন্ত হলে জানা যাবে আসলে কি ঘটেছিল।’

এদিকে নিহতদের ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ হস্তান্তরের দাবিতে রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিক্ষোভ করেন তাদের স্বজনরা।

স্বজনদের পক্ষে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারাও জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমানের সঙ্গে দেখা করে ময়নাতদন্ত ছাড়া মরদেহ হস্তান্তরের অনুমতি প্রার্থনা করেন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাবির্ক) মো. মাসুকুর রহমান সিকদার জানান, নিহতদের স্বজনরা ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ নিয়ে যেতে চান। নিয়ম অনুযায়ী এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ দিকে রীমা কমিউনিটি সেন্টারে পদদলনের ঘটনার পরপরই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। নগর পুলিশের কোতোয়ালি জোনের সহকারী কমিশনার মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গোয়েন্দা পুলিশ সেখানে থাকা একটি ভিডিও ক্যামেরার ফুটজে সংগ্রহ করেছে। ফুটেজ বিশ্লেষণ করে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

গত ১৪ ডিসেম্বর দিনগত রাত ৩টার দিকে বন্দরনগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী মারা যান। সোমবার তার পরিবারের পক্ষ থেকে কুলখানি উপলক্ষে এ মেজবানের আয়োজন করা হয়।


আরোও সংবাদ