পটিয়ায় স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মিত হচ্ছে সূর্যসেন সড়ক

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৯:০২ অপরাহ্ণ

শফিউল আজম,পটিয়া॥
পটিয়ায় স্বেচ্ছশ্রমে নির্মিত হচ্ছে ব্রিটিশ আন্দোলনের পুরোধা মাষ্টার দা সূর্যসেনের নামে ‘মাষ্টার দা সূর্যসেন সড়ক’। সা¤্রাজ্যবাদ বিরোধী আন্দোলনের বীরকণ্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দাদারের জন্মভূমি চট্টগ্রামের পটিয়ার ধলঘাট গ্রাম। উক্ত গ্রামে রয়েছে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের পুরোধা মাষ্টারদা সূর্যসেনের পদচারন। বিপ্লবীপল্লী হিসেবে খ্যাতি অর্জন করা পটিয়ার ধলঘাট গ্রামের তেকোটা-গৈড়লা সড়কে যেভাবে উন্নয়ন হওয়ার কথা ছিল তেমন কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগে নি। উক্ত এলাকার শত শত মানুষকে প্রতিনিয়ত খাল বিল পার হয়ে যেতে হয় নিজ নিজ কর্মস্থলে। শুক্রবার সকাল থেকে নতুন সড়ক নির্মান শুরু করেছে স্থানীয় নারী পুরুষরা। নিজেদের শ্রমে নির্মিত সড়কে শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন উক্ত এলকার শত শত নারী পুরুষ ও শিশুরা। দেড় হাজার ফুট দীর্ঘ এ সড়কে বিল থেকে মাঠি কেটে নিজেরাই মাথায় বোঝাই করে সড়ক তৈরির করার কাজ করে যাচ্ছেন। সড়কটির নামকরন করা হয়েছে মাষ্টারদা সূর্যসেন সড়ক। সকাল ১০ টায় এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন ধলঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রণবীর ঘোষ টুটুন, উপস্থিত ছিলেন, বাঙ্গালী আথিবাসী ইউনিয়নের আহ্বায়ক প্রকৌশরী পুলক কান্তি বড়–য়া, মহিলা মেম্বার কামরুন নাহার,যুবনেতা রবিউল হোসেন রুবেল, নগরিক কমিটির সাধারন সম্পাদক দীলিপ কুমার চৌধুরী প্রমুখ।
ধলঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রণবীর ঘোষ টুটুন জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরে এ এলাকার লোকজন অবহেলিত ছিল। তাই নিজেরাই উদ্যোগ নিয়ে সেচ্চাশ্রমে এ সড়ক নির্মান করছে। এতে প্রমানিত হয়েছে বিপ্লবী পল্লী ধলঘাটের মানুষ বসে থাকতে পারে না। প্রান্তিক মানুষের বোধ আর মননে যখন এমন চেতনা বিকশিত হয়, তখন দেশ হয়ে উঠে সত্যিকার অর্থে ডিজিটাল বাংলাদেশ’
স্থানীয় বাসিন্দা সরিৎ চৌধুরী জানান,‘দীর্ঘদিন ধরে আমরা অবহেলিত ছিলাম। এ সড়ক দিয়ে মাষ্ঠার দা সূর্যসেনের বিচরন ও বিপ্লব সংগঠিত হয়েছিল। আমরা এলাকার একঝাক গ্রামবাসীর সেচ্চাশ্রমে সড়কটির নির্মান কাজ করছি। এ কাজের নাম ডিজিটাল সড়ক। ডিজিটাল হলো একতার দর্শন। এ সড়কটির নামকরন করা হয়েছে মাষ্ঠার দা সূর্যসেন সড়ক’।