পটিয়ায় জিপিএতে গার্লস হাই ও পাসের হারে আদর্শ স্কুল এগিয়ে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৪ মে , ২০১৭ সময় ০৯:২২ অপরাহ্ণ

পটিয়া প্রতিনিধি॥ পটিয়ায় মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় উপজেলার পাসের হারে প্রথমস্থান অর্জন করেছে চট্টগ্রামের প্রাচীনতম বিদ্যাপীট পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়। তবে উপজেলায় সর্বোচ্চ জিপিএ -৫ পেয়েছে দক্ষিন চট্টগ্রামের একমাত্র সরকারী বালিকা স্কুল আবদুর রহমান সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এবার পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ধারাবাহিক সাফল্য ধরে রেখে ২০৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২০৮ জন পাস করে এবং ৩০ জন জিপিএ- ৫ লাভ করে প্রথম স্থান অধিকার করে ফলাফলের শীর্ষে রয়েছে। ফেল করেছে মানবিক বিভাগের ১ জন। পাসের হার ৯৯ শতাংশ। এ বিদ্যালয়টি ধারাবিহক সফলতা ধরে রেখে গতবারের তুলনায় এবারের পাসের হারও বেড়েছে এবং ফেলের সংখ্যাও কমেছে। গত বছর এ বিদ্যালয় থেকে ২৪১ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৩৬ জন পাস করে এবং ৪২ জন জিপিএ- ৫ লাভ করে পাসের হার ছিল ৯৮ শতাংশ। আবদুর রহমান সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৬৯ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১৬৪ জন পাস করে এবং ৫৩ জন জিপিএ-৫ লাভ করে। ফেল করেছে মানবিক বিভাগের ৫ জন। পাসের হার ৯৭ শতাংশ। গতবারের তুলনায় এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ এ পিছিয়ে পরেছে দক্ষিন চট্টগ্রামের একমাত্র সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি। গতবছর এ বিদ্যালয়টিতে ১৯৭ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১৯৬ জন পাস করে এবং ৫৪ জন জিপিএ-৫ লাভ করে পাসের হার ছিল ৯৯ শতাংশ।
এবারের এসএসসি পরীক্ষায় পটিয়া উপজেলার ৪৮ টি বিদ্যালয় থেকে ৬ হাজার ৮৪৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করে। তন্মধ্যে ৫ হাজার ৭১৫ জন শিক্ষার্থী উর্ত্তীন্ন হয়। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৯৯ জন। পসের হার ৮৩.০২ শতাংশ।
পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, ‘এসএসসিতে পাসের হার দিকে থেকে এবার পটিয়ায় অনেক ভালো। বিশেষ করে পৌর সদরের আবদুর রহমান সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি পুরো উপজেলার সেরা স্থানে রয়েছে। শিক্ষকদের আন্তরিকতা ও শিক্ষার্র্থীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠা অব্যাহত থাকলে আরো অনেক ভালো ফলাফল করা যায়। একট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আসল দায়িত্ব হচ্ছে শিক্ষকদের। শিক্ষকদের পাশাপাশি অভিভাবকদেরকেও সচেতন থাকতে হবে।’