পটিয়ায় জাল চুক্তিনামা বানিয়ে জায়গা দখল চেষ্টা

প্রকাশ:| সোমবার, ১৩ নভেম্বর , ২০১৭ সময় ১১:০২ অপরাহ্ণ

পটিয়া প্রতিনিধি
জাল চুক্তিনামা বানিয়ে জায়গা দখল করার চেষ্টার অভিযোগ ওঠেছে পটিয়ায় এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। উপজেলার মালিয়ারা নিশ্চিন্তাপুর এলাকার রতন মল্লিক নামের এক ব্যক্তি জাল চুক্তিনামা সৃজন করে হারাধন দাশ নামের এক নিরীহ লোকের জায়গা দখলের চেষ্টা চলছে বলে এ অভিযোগ পাওয়া যায়। এ জাল চুক্তিনামার বিরুদ্ধে হারাধন দাশের পুত্র উজ্জ্বল দাশ বাদী হয়ে পটিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি জালিয়াতি ও প্রতারণা মামলা দায়ের করেছেন। উক্ত মামলায় রতন মল্লিক ছাড়াও চুক্তিনামার মুসাবিদাকারী সুমন চন্দ্র দাশ, স্বাক্ষী হারাধন মল্লিক, অভিজিৎ দাশ, শিবু মল্লিক, বিশ্বরঞ্জন দাশসহ ৬ জনকে আসামী করা হয়। মামলাটি তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আদালত চট্টগ্রাম ডিবির পরিদর্শক’কে নির্দেশ দিয়েছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, হারাধন দাশ তার পৈত্রিক সম্পত্তিতে দীর্ঘদিন যাবত ভোগ দখলে আছে। হারাধন দাশের ০৪ শতক খাই ভূমি রতন মল্লিক’কে হস্তান্তর করেছে এবং ভবিষ্যতে তাহা রেজিষ্ট্রি দলিল দিবে মর্মে হারাধন দাশের একটি ভূয়া স্বাক্ষর দিয়ে একটি চুক্তিনামা গত ০৬/০৬/২০১০ তারিখে সৃজন করে। অতঃপর সম্প্রতি উক্ত জায়গাটি উজ্জ্বল দাশ নামজারি খতিয়ান নং-১১৪৩/১৭ সৃজন করে। এদিকে রতন মল্লিক উক্ত নামজারী খতিয়ান বাতিলের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসে আপত্তি জানায়। এতে ভূয়া চুক্তিনামার বিষয়টি প্রকাশ পায়। এতে রতন মল্লিক ক্ষীপ্ত হয়ে গত সেপ্টেম্বর মাসে সন্ত্রাসী নিয়ে উজ্জ্বল দাশের বাড়ীতে হামলা চালিয়ে তাদের মাটির ঘর ও মাটির দেওয়াল ভাঙ্গিয়া ফেলে। এ বিষয়ে পটিয়া থানায় একটি ২৪৯৯/১৭ অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। উজ্জ্বল দাশ জানান, রতন মল্লিক খুবই প্রভাবশালী ও ভূমিদস্যু। সে ইতিমধ্যে আরো ৯ জনের জায়গা দখল করে নিয়েছে। গত ৬ নভেম্বর বিমল মল্লিক নামের এক জনের জায়গা দখল করতে গিয়ে বিমল মল্লিককে পিটিয়ে তার দুই হাত ভেঙ্গে দেয়। এ ব্যাপারে রতন মল্লিক সহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গত ১১ নভেম্বর পটিয়া থানার মামলা নং- ১৮(১১)১৭ দায়ের হয়েছে। উজ্জ্বল দাশ সহ এলাকার লোকজন রতন মল্লিকের হয়রানি নির্যাতন থেকে বাঁচতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।