পকেটমার: গণপিটুনি অতঃপর পুলিশে সোপর্দ

প্রকাশ:| রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ০৯:৩৯ অপরাহ্ণ

গণপিটুনি নিহত ৩বাসের ভেতর পকেট কাটার সময় এক পকেটমারকে ধরে কোতয়ালি থানায় সোপর্দ্দ করেছে জনতা। মাশুকুর রহমান নামের এক শিক্ষার্থী কয়েকজন যাত্রীর সহযোগিতায় ধরে ফেলেন ওই পকেটমারকে। পরে জনতা তাকে পিটুনি দেয়।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

গণপিটুনির শিকার ওই পকেটমার হল দুলাল মিয়া (৩০)।

সাহসী শিক্ষার্থী মাশুকুর রহমান (২৪) নগরীর বেসরকারী নিউর‌্যাল ইনস্টিটিউট অবস সাইন্স এন্ড টেকনোলজি’র বিবিএ’র ছাত্র।

মাশুকুর রহমান জানান, তিনি ষোলশহর দুই নম্বর গেইট থেকে নিউমার্কেটগামী দুই নম্বর সিটিবাসে উঠেছিলেন। বাসটি যখন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ অতিক্রম করছিল, তখন তিনি দুলালকে একজনের পকেট কাটতে দেখেন। তিনি সাথে সাথে দুলালকে ধরে ফেলেন। দুলালের সঙ্গে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে বাসে থাকা অন্যান্য যাত্রীরা এসে তাকে ধরে ফেলে।

এসময় দুলালকে বাসের ভেতরে গণপিটুনি দেন যাত্রীরা। বাসটি দ্রুত কোতয়ালি থানার সামনে এলে দুলালকে নিয়ে নেমে যান মাশুকুর। সঙ্গে ছিলেন সিটি ব্যাংকের ষোলশহর শাখার একজন কর্মচারি। তারা দুলালকে কোতয়ালি থানায় সোপর্দ্দ করেন।

কোতয়ালি থানার ডিউটি অফিসার এএসআই শহীদুল ইসলাম বলেন, দুলাল মিয়া নামের একজন পকেটমারকে আমাদের কাছে দেয়া হয়েছে। তাকে দেখে নেশাগ্রস্ত বলে মনে হচ্ছে। তাকে পিটুনি দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।