নৌকার বিজয়কে সুনিশ্চিত করতে করতে হবে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৩ আগস্ট , ২০১৭ সময় ১১:০৬ অপরাহ্ণ

কর্ণফুলী উপজেলা আ’লীগের শোক দিবসের প্রস্তুতি সভায়- আমিনুল ইসলাম

পটিয়া প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-প্রচার সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা আমিনুল ইসলাম আমিন বলেছেন, সারাদেশে নৌকার বিজয়কে সুনিশ্চিত করতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বিশ্বের অন্যতম মহান নেতা। তিনি না হলে বাংলাদেশের সৃষ্টি হতো না। দেশ স্বাধীনত হতো না। জিয়াউর রহমান ও মোস্তকের ষড়যন্ত্রের কারণে বঙ্গবন্ধুকে প্রাণ দিতে হয়েছে। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের আশ্রয় প্র¯্রয় দিয়ে পুরস্কৃত করেছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমায় এসে উন্নয়নের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুদের খুনি ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মাধ্যমে ফাঁসিতে ঝুলিয়েছেন। চট্টগ্রামের কুখ্যাত রাজাকার সালাউদ্দিন কাদের ওরফে সাকা চৌধুরী অট্টহাসি দিয়ে ও আস্ফালন করে বলেছিলেন বাংলার মাটিতে তার বিচার কেউ করতে পারবে না। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনা তথ্য ও প্রমান স্বাপেক্ষে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। আজকে সারা দেশে নৌকার পক্ষে নৌকার জোয়ার উঠেছে। শেখ হাসিনার উন্নয়ন দেশ, বিদেশে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। আগামী ২০ আগস্ট কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ফারুক চৌধুরীকে জয় করার পাশাপাশি সারা দেশে নৌকার বিজয়কে সুনিশ্চিত করতে সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান।
কিন্তু জিয়াউর রহমানের পুত্র তারেক রহমান টাকা পাচারের অপরাধে আন্তর্জাতিকভাবে তাকে চোর স্বীকৃতি দিয়েছে। তার আরেক পুত্র আরাফাত রহমান কোকো মাদকাসক্তা হয়ে মৃত্যু বরণ করেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও মহিলা আ’লীগের উদ্যোগে আয়োজিত শোক দিবসের এক প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমিনুল ইসলাম উপরোক্ত কথা বলেন।
কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি ছৈয়দ জামাল আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনির পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা এম,এ জাফর, মুক্তিযোদ্ধা এম,এন, ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা ছিদ্দিক আহমদ বি.কম, কর্ণফুলী উপজেলা আ’লীগের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আলী, ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমদ, শিকলবাহা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, বড়উঠান ইউপি চেয়ারমান দিদারুল আলম, জুলধা ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইউনুচ, জহির উদ্দিন, আবদুস শুক্কুর, এম, মারুফ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শহীদ চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান রফিক উল্লাহ, সেলিম উল্লাহ, নুর আহমদ, ওসমান গণি মেম্বার, এস,এম ছালেহ, জসিম উদ্দিন, জুলধা আ’লীগ সভাপতি আমির আহমদ, চরলক্ষ্যা সভাপতি রফিক আহমদ, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ, চরপাথরঘাটার সভাপতি ছৈয়দ আহমদ, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, বড়উঠান আ’লীগ সভাপতি আমজাদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান খান, মেজবাহ উদ্দিন খান, হারুন সওদাগর, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মো. গালিব, দিদারুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা যুবলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আবিদ হোসেন, জেলা যুবলী নেতা আবদুল মান্নান, কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগ সভাপতি সোলেমান তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক সেলিমুল হক, মিল্ক ভিটার পরিচালক নাজিম উদ্দিন হায়দার, মহিলা নেত্রী মোমেনা আকতার নয়ন, কর্ণফুলী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি শাহেদুর রহমান শাহেদ, সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা জসিম উদ্দিন, জীবন মঞ্জুরুল আলম প্রমুখ।