নোমানকে বিএনপির স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করার দাবী

প্রকাশ:| শনিবার, ২৭ আগস্ট , ২০১৬ সময় ১০:১৯ অপরাহ্ণ

নোমানকে বিএনপির স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করার দাবীসাবেক মন্ত্রী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল্লাহ আল নোমানকে অবিলম্বে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য দলটির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন চট্টগ্রামের বিএনপি নেতৃবৃন্দ। নোমানকে অবিলম্বে স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করার দাবিতে চট্টগ্রামে বিএনপির বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীদের উদ্যোগে চট্টগ্রাম বিএনপি পরিবারের ব্যানারে শনিবার বিকাল ৪টায় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি কার্যালয় চত্বরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে এই আহবান জানান বিএনপি নেতারা। চট্টগ্রাম মহানগরী ও জেলার বিভিন্ন থানা থেকে মিছিল সহকারে স্বতঃস্ফুর্তভাবে হাজার হাজার বিএনপি নেতাকর্মী এই সমাবেশে সমবেত হলে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির নাসিমন ভবনস্থ কার্য্যালয়ের সম্মুখস্থ মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপচে পড়া ভিড়ে নাসিমন ভবনের সামনে নূর আহমেদ সড়কে জনস্্েরাতে পরিণত হয়। তৃণমুল নেতাকর্মীদের প্রিয় নেতা নোমানকে স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করার দাবীতে সেøাগানে সেøাগানে পুরো সমাবেশস্থল মুখর করে তোলে বিএনপি নেতাকর্মীরা।
bnp nomanসমাবেশে বিএনপি নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, দলের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে মেধা ও শ্রম দিয়ে বৃহত্তর চট্টগ্রাম বিভাগে বিএনপিকে সংগঠিত করেছেন জননেতা আবদুল্লাহ আল নোমান। তাঁর হাতে গড়ে উঠেছে হাজার হাজার নেতাকর্মী। এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে যখন সুবিধাবাদী নেতারা দলত্যাগ করেছিল, নোমান তখন বিএনপি অফিসে মোমবাতি প্রজ্জলন করে চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে কর্মী সংগ্রহ করে দলকে সংগঠিত করে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন জোরদার করেছিল। চট্টগ্রাম বিএনপির সফলতা তাঁর হাতেই অর্জন। চট্টগ্রাম বিএনপিতে আজ যারা কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের নেতা তাদের প্রায় সকলেই তাঁর হাত ধরেই বিএনপিতে এসেছেন এবং তাঁর হাতে গড়া নেতাকর্মী।
বক্তারা বলেন, ১/১১ সরকারের শেষের দিকে চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক লালদিঘী ময়দানে ৭ই নভেম্বর উপলক্ষে বিশাল জনসভার আয়োজন করে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে লাখো মানুষের জনসম্মুখে নিয়ে এসে বিএনপির পূর্ণজাগরন ঘটিয়েছিল আবদুল্লাহ আল নোমান। তাছাড়া এই আবদুল্লাহ আল নোমান ১৯৮৭ সালে চট্টগ্রামের লালদিঘী ময়দানে বিশাল জনসভার মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে দেশনেত্রী উপাধিতে ভুষিত করেছিলেন। অথচ বর্তমানে ঘোষিত বিএনপির স্থায়ী কমিটিতে তাঁকে সদস্য করা হয় নাই। বিএনপি নেতৃবৃন্দ তাঁদের বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আবদুল্লাহ আল নোমানকে স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত না করায় চট্টগ্রামসহ সারাদেশে বিএনপি নেতাকর্মী, শুভানুধ্যায়ী, মুক্তিযোদ্ধা ও সুশীল সমাজ ক্ষুদ্ধ ও হতাশ। বক্তারা বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বর্তমান স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন জোরদার করার জন্য এবং রাজপথের আন্দোলনে সফলতা অর্জন করার জন্য জননেতা আবদুল্লাহ আল নোমানকে যথাযথ সম্মান দিয়ে অবিলম্বে দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করুন। নোমানকে অন্তর্ভূক্ত করলে দল লাভবান হবে এবং রাজপথের আন্দোলনে গতি সঞ্চার হবে।
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক বিষয়ক সম্পাদক এ.এম. নাজিম উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য ও প্রবীণ বিএনপি নেতা এ্যাড. মোঃ কবির চৌধুরী। সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় শ্রমিকদলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, চট্টগ্রাম মাহনগর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাংগীর আলম চৌধুরী, উত্তর জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এম.এ. হালিম, মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ন-সম্পাদক এম.এ.সবুর, কাজী আকবর প্রমুখ।