নূরের বিরুদ্ধে দ্বিতীয়বারের মতো রেড ওয়ারেন্ট

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৭ মে , ২০১৪ সময় ১০:৫৪ অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাত খুনের মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনের বিরুদ্ধে দ্বিতীয়বারের মতো রেড ওয়ারেন্ট জারি করেছে আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোল। সেখানে তাঁর বিরুদ্ধে খুন, অপহরণ, অন্যায়ভাবে গুম, অপরাধী চক্রের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এর আগে ২০০৭ সালেও ইন্টারপোল নূর হোসেনের বিরুদ্ধে রেড ওয়ারেন্ট জারি করেছিল।
ফ্রান্সভিত্তিক এ প্রতিষ্ঠানটি আজ মঙ্গলবার তাদের ওয়েবসাইটে বিশ্বের অন্য রেড ওয়ান্টেড ব্যক্তিদের সঙ্গে নূর হোসেনের ছবি ও নাম প্রকাশ করেছে। সেখানে নূর হোসেনের জন্ম-তারিখ দেওয়া হয়েছে ১৯৬০ সালের ১০ জানুয়ারি। জন্মস্থান নারায়ণগঞ্জ। উচ্চতা ১ দশমিক ৬১ মিটার। ওজন ৬২ কেজি। চুলের রং রঙিন।
নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের ঘটনার প্রায় এক মাস পর ইন্টারপোলে রেড ওয়ারেন্ট জারি করা হলো। সাত খুনের মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে প্রায় এক মাসেও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এমনকি তিনি কোথায় আছেন, তাও নিশ্চিত নন তদন্তকারীরা৷
নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপারের কার্যালয় ২২ মে নূর হোসেনকে গ্রেপ্তারের জন্য আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোলের সহায়তা চেয়ে পুলিশ সদর দপ্তরে চিঠি পাঠালেও আজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ বিষয়ের জন্য নথি চালাচালি শুরু করে।
সূত্র জানায়, ২০০১ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট ক্ষমতায় এলে নূর হোসেন ভারতে পালিয়ে যান। ২০০৭ সালের ১২ এপ্রিল ইন্টারপোল নূর হোসেনের বিরুদ্ধে রেড ওয়ারেন্ট জারি করেছিল। তখন ইন্টারপোল তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে নূর হোসেনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস, বিস্ফোরক ও প্রাণনাশের হুমকিসহ নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করেছিল।
উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জের সরকারদলীয় সাংসদ শামীম ওসমান সাত খুনের মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে বিদেশে পালাতে সহায়তা করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ-সংক্রান্ত একটি ফোনালাপও গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। তবে নানা কারণে আলোচনায় থাকা শামীম ওসমান নূর হোসেনকে ফোনে আত্মসমর্পণ করতে বলেছেন বলে দাবি করেছেন।


আরোও সংবাদ