নিশ্বাসের বিশ্বাস নেই, সময় থাকতে আমল করুন

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| সোমবার, ১১ জুন , ২০১৮ সময় ০৯:৪১ অপরাহ্ণ

ইতিকাফকারীদের উদ্দেশ্যে আল্লামা শাহ আহমদ শফী

দারুল উলূম হাটহাজারী মাদরাসার বায়তুল করীম মসজিদে অবস্থানরত ইতিকাফকারীদের উদ্দেশ্যে ১০ জুন, যোহর নামাযের পর শায়খুল ইসলাম আল্লামা শসহ আহমদ শফী বলেছেন, হে ইতিকাফকারী ভাইগণ, আপনারা অনেকেই ৪০,৩০,২০, ও ১০ দিনের ইতিকাফ করার জন্য এসেছেন। কিন্তু যাওয়ার সময় কী নিয়ে যাবেন? এখানে যেসব আমল করতেছেন সবগুলো চালু রাখবেন। আল্লাহ তা’আলা আপনাদের উত্তম প্রতিদান দান করবেন।

আপনারা আসার পর থেকে ছাত্র ভাইরা আপনাদের খেদমত করে যাচ্ছে। মেহমানদারী করতেছে। কারণ আপনারা আল্লাহর মেহমান। মেহমানের সম্মান করা ঈমানদারের নৈতিক দায়িত্ব। রাসূল ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যারা আল্লাহ তা’আলা ও পরকালে বিশ্বাসী, সে যেনো মেহমানকে সম্মান করে।

শায়খুল ইসলাম আল্লামা হুসাইন আহমদ মাদানী (রহ.) এর নিকট একদা অনেকগুলো মেহমান আসলেন। খাদেমগণ প্রত্যেকের জন্যে বিছানাপত্র ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। কিন্তু একজন মানুষ বিছানা পায় নি। সে চেয়ারে বসে আছে। হুসাইন আহমদ মাদানী (রহ.) জিজ্ঞেস করলেন, এই লোকটি বিছানা পেলো না কেনো? খাদেমরা উত্তর দিলো, হুযুর লোকটি হিন্দু। তখন হুসাইন আহমদ মাদানী (রহ.) নিজের রুমে প্রবেশ করে নিজের ব্যবহৃত বিছানা এনে লোকটিকে বিছিয়ে দিয়ে বললেন, সে যে ধর্মেরই হোক না কেন? সে তো এখন আমার মেহমান। দেখুন, মেহমানের সম্মানের নমূনা!

আপনারা এখানে দস্তরখানা বিছিয়ে খাবার খাচ্ছেন। বাড়িতে গিয়েও সেমতে আমল করবেন। নফল নামায, তাহাজ্জত, ইশরাক, আওয়াবীন ও ছালাতুত তাছবীহসহ যেসব নফল নামায আপনারা এখানে আদায় করতেছেন, সেগুলো বাড়ি গিয়েও আদায় করবেন। ভাই, নিশ্বাসের বিশ্বাস নেই। কাজেই সময় থাকতে আমল করুন।

এখান থেকে যা শিখে যাবেন, সবসময় সেমতে আমল করবেন। ইমাম সাহেবের নিকট গিয়ে বলবেন, আমার নামাযটা হচ্ছে কিনা একটু দেখুন। আমার রুকু, সেজদা, কেরাত, তাশাহ্হুদ, দরুদ শরীফ, দু’আ মাছূরা, দু’আ কুনুত ইত্যাদি ঠিক আছে কিনা একটু দেখুন।

শিরক-বিদআত থেকে দূরে থাকুন। মাযারে সেজদা করবেন না। নামায কাযা করবেন না। যাকাত, রোযা ও হজ্ব সঠিকভাবে আদায় করুন।