নির্লোভ ও ত্যাগী রাজনীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত জহুর আহমদ চৌধুরী

প্রকাশ:| রবিবার, ২ জুলাই , ২০১৭ সময় ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় আ জ ম নাছির

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, জহুর আহমেদ চৌধুরী উপমহাদেশের একজন নির্লোভ ও ত্যাগী রাজনীতির উজ্জ্বল মডেল। এদেশের শ্রমজীবী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা, গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধে তার অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তাই তিনি মৃত্যুর পরও মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের রাজনৈতিক শক্তির পথ প্রদর্শক হিসেবে আমাদেরকে প্রেরণা যুগিয়ে যাচ্ছেন। আজ সকালে নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে উপমহাদেশখ্যাত শ্রমিক নেতা, মুক্তিযুদ্ধকালীন পূর্বাঞ্চলের চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী ও নগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পরবর্তীতে সভাপতি মরহুম জহুর আহমদ চৌধুরীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, অর্থ বিত্তের পাহাড় গড়ার জন্য যারা রাজনীতিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছেন তারা দল, দেশ ও জাতির জন্য অমঙ্গলের দুষ্টগ্রহ। এদের কবল থেকে দল, দেশ ও জনগণকে রক্ষা করতে হবে। আগামী জাতীয় নির্বাচনে দলের হয়ে যে কেউ মনোনয়ন চাইতে পারে। যারা নৌকা প্রতীক পাবেন না, তারপক্ষে কাজ করতে হবে। তিনি যাকে দেবন তার পক্ষে তাদেরকে কাজ করতে হবে, তা না হলে তারা এখনই দল থেকে সরে যেতে পারেন। তিনি আরো বলেন, গত ৮ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক অর্জনের ক্ষেত্রে যে নজিরবিহীন কীর্তি স্থাপন করেছেন তা যদি জনগণের মাঝে সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে সমর্থ হই, তাহলে আগামী নির্বাচনে আবারও নৌকার বিজয় অবশ্যম্ভাবী। তিনি এ লক্ষে নগরীর ৪৪টি সাংগঠনিক ওয়ার্ড ও ১৫টি থানায় দলীয় ভিত্তিকে সুদৃঢ় করার জন্য তৃণমূল স্তরের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান। সভাপতির ভাষণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, জহুর আহমদ চৌধুরীর সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কোন কালিমা নেই। আমৃত্যু বঙ্গবন্ধুর সহচর হিসেবে নীতি-আদর্শ ও মানব কল্যাণের প্রতি নিবেদিত প্রাণ ছিলেন। তাঁর জীবনদর্শন আজকের দিনে উদীয়মান রাজনীতিকদের জন্য শিক্ষনীয় পাঠ। এ পাঠ সঠিকভাবে আমরা গ্রহণ করতে পারলে অবশ্যই দল, দেশ ও জাতির জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে। আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, আলহাজ্ব এম. এ রশিদ, উপদেষ্টা শেখ মুহাম্মদ ইসহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, শ্রম সম্পাদক আবদুল আহাদ, উপ সম্পাদক শহিদুল আলম, কার্যনির্বাহী সদস্য বখতিয়ার উদ্দিন খান, অমল মিত্র, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুর হক, থানা আওয়ামীলীগের সিদ্দিক আলম, আলহাজ্ব সাহাব উদ্দিন আহমেদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক এইচ.এম জিয়াউদ্দিন, যুগ্ম আহ্বায়ক কে.বি. এম শাহজাহান, মো. সালাহ উদ্দিন আহমেদ, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সামশুল আলম, মো. আতিকুর রহমান, এস.কে পাল, ইস্কান্দার মিয়া, শেখ সরোয়ার্দী, মো. জসিম উদ্দিন প্রমুখ। এর আগে মরহুম জহুর আহমেদ চৌধুরী’র কবরে খতমে কোরআন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিনের নেতৃত্বে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।