নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে খাগড়াছড়িতে সমাবেশ

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ০৯:২৮ অপরাহ্ণ

৫ অক্টোবর ২০১৩ রোজ শুক্রবার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল তথা ১৮ দলীয় জোটের উদ্যোগে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি, সদর উপজেলা, পৌর এবং জেলা সকল অঙ্গ-সংগঠন ও ক রির্পোট:- পৌর ওয়ার্ড সমূহ এবং জামায়াত-ইসলামী ও ছাত্র-শিবিরের বাস টার্মিনাল সংলগ্ন খাগড়াছড়ি গেইট সম্মুখে ১৮ দলীয় জোটের বিশাল সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাবু প্রবীন চন্দ্র চাকমা সিনিয়র সহ-সভাপতি জেলা বিএনপি, খাগড়াছড়ি।
সভাটি পূর্ব নির্ধারিত থাকলেও বর্তমান সরকারের প্রশাসন ও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ একতরফাভাবে সমাবেশ বানচাল করার লক্ষ্যে গতকাল রাত ১২ টা থেকে আজ রাত ১২ টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারী করে। কিন্তু খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি তাদের প্রস্তাব প্রত্যাখান করে গতকাল সন্ধ্যায় আজকের সভার সমর্থনে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করে। ঐ মিছিল থেকে ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার পূর্বক সভা সমাবেশ করতে দেওয়া না হলে খাগড়াছড়ি জেলাকে অচল করে দেওয়ার হুশিয়ারী উচ্চারন করেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজকেও প্রশাসনকে সাফ জানিয়ে দেন ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার করা না হলে জেলা বিএনপি তা ভঙ্গ করে সভা সমাবেশ করবে। বিএনপি প্রতিরোধের মুখে বাধ্য হয়ে প্রশাসন দুপুর ১.৩০ ঘটিকায় ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার করে সভা সমাবেশ শিথিল করেন। সাথে সাথে জেলা বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ মিছিল সহকারে সমাবেশ স্থলে হাজির হলে বিশাল জনসমুদ্রে পরিনত হয়।
বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রবীন চন্দ্র চাকমা, সহ-সভাপতি মণিন্দ্র লাল ত্রিপুরা, আমিন শরীফ, যুগ্ম সম্পাদক তাজুল ইসলাম বাদল, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি অনিমেষ দেওয়ান নন্দিত, পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুর রব রাজা, জেলা জামায়াত ইসলামী কর্মপরিষদ সদস্য আব্দুল মান্নান, ইসলামী ছাত্র শিবির সভাপতি মিনহাজুর রহমান, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলম, জেলা ছাত্র দলের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এস.এম আবু তাহের, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী শাহানাজ বেগম রোজী, জেলা কৃষক দলের সভাপতি এম এ হান্নান, জেলা শ্রমীক দলের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, জেলা তাঁতী দলের সভাপতি আলমগীর মিয়া, জেলা মৎস্যজীবি দলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রিয়াজ হোসেন, জেলা জাসাসের সভাপতি এডভোকেট আব্দুল মমিন, জেলা বাস্তহারা দলের সভাপতি নুরুল আলম প্রমুখ।
বক্তারা তাদের বক্তৃতায় বলেন বর্তমান ফ্যাসিষ্ট ও জুলুমবাজ সরকারের মেয়াদ আজ শেষ হয়েছে। জুলুম, নির্যাতন, হত্যা, গুম, দূর্নীতিসহ সকল অপকর্মের হিসাব নিকাশ দিতে সরকারকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান এবং দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ঘোষিত আগামী ২৭ অক্টোবর সকাল ৬ ঘটিকার হতে ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬ ঘটিকা পর্যন্ত ৩ দিনের সর্বাত্মক হরতাল পালনের আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক এমপি ও জেলা বিএনপির সভাপতি ওয়াদুদ ভূইয়াসহ জেলা বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। হরতাল চলাকালে বিএনপির নেতৃবৃন্দকে অহেতুক গ্রেফতার, হয়রানি ও নির্যাতন করা হলে খাগড়াছড়ি শহরসহ সারা জেলা অচল করে দেওয়া হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারন করেন এবং অবিলম্বে নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকার গঠন করে ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য দাবী জানান বক্তারা।
লক্ষ্মীছড়ি-নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেরায় বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষাভ মিছিল ও সমাবেশ হয়েছে। ২৫ অক্টোবর সকাল থেকেই বিভিন্ন এলাকা থেকে সকল দলের নেতা-কর্মীরা উপজেলা বিএনপি’র কার্যালয়ে এসে জড়ো হতে থাকে। জুমা’র নামাজের পর বিক্ষোভ মিছল বের করা হয়। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো: ফোরকান হাওলাদার। বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো: মোবারক হোসেন, উপজেলা যুবদলের সভাপতি মো: শামশুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো: মকবুল আহমেদ, উপজেলা ছাত্রদল সভাপতি মো: আজিজুল হক, লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো: রেজাউল করিম ও দুল্যাতলী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মো: দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ। বক্তারা খাগড়াছড়ি জেলা পৌর শহরে পুলিশের ১৪৪ ধারা জারির নিন্দা জানান। তীব্র নিন্দা জানান, রাতের অন্ধকারে বিএনপির একটি ব্যানার নিখোঁজ হওয়ার। বক্তারা অভিযোগ করেন, এখনো পুলিশ প্রশাসন নিরপেক্ষ হয় নি, প্রশ্ন রাখেন যারা বিগত ৫ বছর ধরে চাঁদাবাজি, টেন্ডার বাজি, লুটপাট, খুন, গুম ও বিএনপির নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষকে অত্যাচার নির্যাতন করেছে তারা আবার কিভাবে প্রকাশে ঘুরে বেড়ায়। ব্যানার নিখোঁজের সাথে যারাই জড়িত থাকুক তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। বেগম খালেদা জিয়া ও খাগড়াছড়ি জেলার বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয় বোর্ড চেয়ারম্যান ওয়াদুদ ভূইয়ার নিদের্শে সকল কর্মসূচী পালন করার পাশাপাশি শেখ হাসিনার অধিনে নির্বাচনে না যাওয়ার ঘোষণা বক্তারা।

মহালছড়ি –খাগড়াছড়ি’র মহালছড়ি উপজেলায় ২৫ অক্টোবর শুক্রবার বিকাল ৪টায় গুড়িগুড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে । উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোঃ হোসেন (বাবু) । সমাবেশের শুরুতে আব্দুল সাত্তার মেম্বার এর উপস্থাপনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোঃ জহিরুল হক, এবং এতে আরো বক্তব্য রাখেন- মুবাছড়ি ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি উলাপ্রু মারমা, যুবদল সভাপতি ইসমাইল হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বকুল, স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি মোঃ ফারুক হোসেন, বাস্তুহারা দলের উপজাতি সম্পাদক তুহিন চাকমা, কৃষক দল সভাপতি আঃ মান্নান মেম্বার, জাসাস সভাপতি মুজিবুর রহমান, মৎস্যজিবী দল সম্পাদক জুনু মিয়া ও ঢাকাস্থ খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল সাকিব বাপ্পি প্রমূখ। সমাবেশ থেকে বক্তারা এই সরকারকে ‘অবৈধ’ উল্লেখ করে অবিলম্বে পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন । সেই সঙ্গে নিরপে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোনোভাবেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে না বলে জানান। এবং সমাবেশে যেকোনো মূল্যে নির্বাচন প্রতিহতের ঘোষণা দেন বিএনপি নেতারা । দেশব্যাপী ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও জুলুম-নিপীড়ন বন্ধের দাবি জানান । অন্যথায় খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপতি ওয়াদুদ ভূঁইয়া কে সাথে নিয়ে কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে খাগড়াছড়ি সহ পুরো দেশ অচল করে দেওয়ার হুমকি দেন বক্তারা । সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন- আব্দুল সাত্তার মেম্বার, জামাল উদ্দিন টিপু, উবাহেন রাখাইন, হেলাল উদ্দিন, মোঃ সেকান্দার, মোঃ মান্নান, নুরুল ইসলাম, আবুল খায়ের, প্রমুখ । আইন শৃংখলা অবনতির আশংকায় বিপুল পরিমাণ পুলিশ বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিতে দেখা যায় ।