নিরীহ মানুষকে মাদক দিয়ে ফাঁসায় ইউপি সদস্য যীশু

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৭ সেপ্টেম্বর , ২০১৭ সময় ০৭:৪৪ অপরাহ্ণ

বোয়ালখালীতে
বোয়ালখালী প্রতিনিধি : থানা পুলিশের সাথে আঁতাত করে মাদক দিয়ে সাধারণ মানুষকে ফাঁসিয়ে দেয় পোপাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য যীশু দে।
বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) বোয়ালখালী উপজেলার মাসিক আইন শৃঙ্খলার সভায় পোপাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম জসিম উদ্দিন তার বক্তব্য ইউপি সদস্য যীশু দে’র এ কুর্কীতি তুলে ধরেন।
সম্প্রতি পোপাদিয়া ইউনিয়নসহ উপজেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে বলে উল্লেখ করে এসএম জসিম উদ্দিন বলেন, ইউপি সদস্য যীশু দে এলাকায় ইয়াবা ও মদ ব্যবসা চালিয়ে আসছে। পুলিশ তার বিরুদ্ধে এখনো পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া আখতারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আতাউল হক। এছাড়া আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন উপস্থিত উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দ।
বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) উপজেলার পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মাসিক আইন শৃঙ্খলা সভায় উপস্থিত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
এলাকায় ইয়াবা ব্যবসা বিস্তারের পাশাপাশি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে উঠছে জানিয়ে প্যানেল মেয়র এসএম মিজানুর রহমান বলেন, পুলিশ জনগণের বন্ধু হলেও থানা এখন দালালদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। ফলে এলাকায় চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হচ্ছে। পুলিশের নিরবতায় পারিবারিক সহিংসতা, হানাহানি, মারামারি গোলাগুলির ঘটনা ঘটে চলেছে একের পর এক।
আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে জানিয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহ্ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ইউপি সদস্য যীশু যদি মাদক ব্যবসা বা অনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িত থাকেন সে ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদ ব্যবস্থা নিতে পারে। এছাড়া এলাকায় মাদক বন্ধে পুলিশ তৎপর রয়েছে। তবে সভায় কোনো ইউপি চেয়ারম্যান আইনশৃঙ্খলা অবনতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেননি।
এলাকায় যদি মাদক ব্যবসা সেবী থেকে থাকে তাদের নাম ইউনিয়ন পরিষদ সামনে টাঙিয়ে দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।
আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকলের সহযোগিতা কামনা করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া আখতার তার বক্তব্যে জানান, ঈদের পরে বিচ্ছিন্ন কয়েকটি ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নিতে থানা পুলিশকে পরামর্শ দেন।
অভিযোগের বিষয়ে ইউপি সদস্য যীশু দে অস্বীকার করে বলেন, মাদক বিক্রি বা কোনো অপকর্মে সাথে জড়িত নই। তবে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া এলাকার কিছু অপরাধী অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।
সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিদা আকতার শেফু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জহুরুল আলম জাহাঙ্গীর, মুক্তিযোদ্ধা আহম্মদ হোসেন, এসএম সেলিম, আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আলম, রেজাইল করিম বাবুল, জাসদ সভাপতি মনির উদ্দিন খান, ইউপি চেয়ারম্যান বেলাল হোসেন, আবদুল মান্নান মোনাফ, শামসুল আলম, কাজল দে, হামিদুল হক মান্নান প্রমুখ।