নিপীড়কদের শাস্তির দাবিতে উত্তাল ঢাবি

প্রকাশ:| সোমবার, ২০ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ০৯:৪৩ অপরাহ্ণ

পহেলা বৈশাখে নারীর শ্লীলতাহানির ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাস। ওই ঘটনার পর এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও দোষীদের এখনো খুঁজে বের করতে পারেনি প্রশাসন। এতে ক্ষুদ্ধ শিক্ষক-শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে সচেতন মহলের সবাই। ঘটনার বিচার দাবিতে প্রতিদিনই বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

নিপীড়কদের শাস্তির দাবিতে উত্তাল ঢাবিসোমবারও নানান কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে এ ঘটনার প্রতিবাদ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে দায়ী করে তাদের অপসারণের দাবী জানিয়েছে সংগঠনগুলো।

ঢাবি শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদ:
পহেলা বৈশাখে নারীদের উপর যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদে এবং দোষীদের দ্রুত বিচার দাবিতে দুপুর ১২টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে একটি মানববন্ধনের আয়োজন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। মানববন্ধনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা
উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে শিক্ষক সমিতির নেতারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।DU-2

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ঢাবিকে কলঙ্কিত করার জন্যে কিছু গোষ্ঠী চক্রান্ত চালাচ্ছে। তারাই এধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে। ভিডিও ফুটেজ দেখে অচিরেই তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হোক।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. ফরিদউদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও আর্থ অ্যান্ড ইনভায়ারমেন্টাল সাইন্স অনুষদের ডিন ড. এস এম মাকসুদ কামাল, ক্রিমিনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. জিয়া রহমান প্রমুখ।

ছাত্র ইউনিয়নের মানববন্ধন:
পহেলা বৈশাখে নারীর শ্লীলতাহানির ঘটনায় জড়িত বখাটেদের বিচারের দাবিতে টানা কর্মসূচি পালন করছে ছাত্র ইউনিয়ন। নিয়মিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সোমবার সকালে টিএসসির রাজু ভাস্কর্যের সামনে তারা মানববন্ধনের আয়োজন করেছেন।

মানববন্ধনে যৌন হয়রানি বন্ধে জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন করার আহ্বান জানানো হয়। পাশাপাশি এ ঘটনার জন্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে দায়ী করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. এম আমজাদ আলীর পদত্যাগের দাবি জানানো হয়েছে।

এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর আগামীকাল স্মারকলিপি পেশ করা হবে বলে জানানো হয়। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র ইউনিয়ন ঢাবি শাখা সভাপতি লিটন নন্দীসহ ছাত্র ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা।

Duসাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ:
ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ঢাবির সাধারণ শিক্ষার্থীরাও। সোমবার দুপুর ১টায় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধনে অংশ নেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন টেলিভিশন অ্যান্ড ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান এজে এম শফিউল আলম ভুঁইয়া, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক শান্তনু মজুমদার, অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক এম এম আকাশ সহ সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের
শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে বক্তারা টিএসসির ঘটনাকে ভয়ঙ্কর হিসেবে অভিহিত করে দোষীদের দ্রুত খুঁজে বের করে শাস্তির মুখোমুখি করার দাবি জানান।