নিখোঁজ মালয়েশিয়ার বিমানটি মার্কিন সেনারা ভূপাতিত করেছিল

প্রকাশ:| সোমবার, ২২ ডিসেম্বর , ২০১৪ সময় ১১:০৬ অপরাহ্ণ

গত মার্চে ২৩৯ যাত্রী নিয়ে নিখোঁজ মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের বিমানটি মার্কিন সেনারা গুলি করে ভূপাতিত করেছিল বলে দাবি করা হচ্ছে। ভারতমহাসাগরের আকাশে হারিয়ে যাওয়া বিমানটি নিয়ে সারাবিশ্বে তোলপাড় হয়েছে। এ নিয়ে তত্ত্বও প্রচলিত রয়েছে। এরমধ্যে অনেক ষড়যন্ত্র তত্ত্বের মধ্যে নতুন সংযোজন হলো মার্কিন সেনাদের হাতে ভূপাতিত হওয়ার দাবি।

এই দাবি করেছেন ফ্রান্সের একটি অভ্যন্তরীন বিমান সংস্থার প্রধান কর্মকর্তা।

ফরাসি সাময়িকী প্যারিস ম্যাচে প্রকাশিত নিবন্ধে প্রোতিয়াস এয়ারলাইন্সের পরিচালক ও প্রতিষ্ঠিত লেখক মার্ক দুগেঁ জানান, আন্তর্জাতিক অনুসন্ধানকারী দল ভারত মহাসাগরের যে অংশে মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ ধ্বংসাবশেষের অনুসন্ধান চালিয়েছিল তার কাছেই মার্কিন সামরিক ঘাঁটি দিয়েগো গার্সিয়ার অবস্থান। ১/১১ এর মতো হামলার আশঙ্কা থেকে সেনারা বিমানটি গুলি করে ভূপাতিত করে।
মালয়েশিয়া এয়ারলাইনসের বিমানটি নিখোঁজ হবার আগে নির্ধারিত রুটের উল্টোপথে দিক পরিবর্তন করেছিল
২৩৯ যাত্রী আরোহী গত ৮ মার্চ রাতে নিখোঁজ হয় মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের এমএইচ-৩৭০ ফ্লাইট। বোয়িং-৭৭৭ মডেলের বিমানটি মালেয়শিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে চীনের বেইজিং যাচ্ছিল। প্রায় এক মাস চেষ্টার পরও আর্ন্তজাতিক অনুসন্ধানকারী দল বিমানটির কোনো সন্ধান পায়নি। শেষ পর্যন্ত অভিযানকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করতে বাধ্য হয় মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষ।

মার্ক দুগেঁ বলেন, ‘প্রযুক্তির এই যুগে ৬৩ মিটার লম্বা একটি বস্তু বেমালুম গায়েব হয়ে যাবে, তার মানে হচ্ছে স্বেচ্ছায় প্রমাণ লুকানোর চেষ্টা করছে কেউ।’