নাজিরহাটে দোকানে বস্তাবন্দি লাশ

প্রকাশ:| বুধবার, ১১ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ১১:৩৭ অপরাহ্ণ

মোঃ মহিন উদ্দীন<>
হাটহাজারীতে আজ ১১ ফেব্রুয়ারী রাত আনুমানিক ৮টার সময় নাজিরহাট পুরাতন ব্রিজের পশ্চিম পাশে নাজিরহাট কলেজ রোড় একটি হার্ডওয়াডের দোকানের ভিতরে বস্তাবন্দি লাশ পাওয়া যায় । লাশটি অবসারপ্রাপ্ত এক স্টেশন মাস্টারের বলে জানা গেছে।

রমানন পালিত নাজিরহাট স্টেশনের সাবেক মাস্টার। তার বাড়ী রাউজান উপজেলায়। নাজিরহাট রেলওয়ে কলোনিতে তিনি ভাড়া বাসায় থাকতেন। টাকা লেনদেন নিয়ে তিনি খুন হতে পারেন বলে ধারণা করছে পুলিশ।

হাটহাজারী সার্কেলের এএসপি আফম নিজাম উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, নাজিরহাট কলেজ এলাকায় রমাননের বস্তাবন্দি লাশ দেখে স্থানীয় জনতা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে টাকা পয়সার লেনদেন নিয়ে তাকে কেউ খুন করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হাটাহাজারী থানার উপ পরিদর্শক হাবিবুর রহমান। তিনি বলেন, রমাননকে খুন করে তার লাশ বস্তাবন্দি করে কলেজ এলাকায় আবর্জনা দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়েছিল। আমরা ঘটনা তদন্ত করছি। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,
নিহত রমান পালিত এর বাড়ী রাউজানে । হাডওয়ার দোকানের মালিক ফোরকানের কাছে
পাওনা টাকা চাইতে যায় রমানন পালিত এমন দাবী পরিবারের । বাসা ফিরে না আসায়
খুজতে থাকে পরিবার । এক পযায় তারা দোকান মালিকের সাথে কথা বললে সে
অস্বীকার করে । তার পর তারা দোকানে গেলে বন্ধ দেখে স্থানীয় জনগণকে ঘটনাটি
জানালে তারা হাটহাজারী মডেল থানায় খবর দেয় । তারপর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে
গিয়ে দোকানের ভিতর ঢুকে বস্তাবন্দি লাশটি দেখে উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ
করে । এই ব্যাপারে হাটহাজারী মডেল থানার এস আই হাবিব এর কাছে জানতে চাইলে
তিনি এ প্রতিবেদককে জানান আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে বস্তাবন্দি
লাশটি উদ্ধার করি এবং দোকানের এক কর্মচারিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে ।


আরোও সংবাদ