নাছিরের জন্য ভোট চাইলেন নওফেল

প্রকাশ:| শনিবার, ২৫ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ১১:৫০ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিনের সমর্থনে নগরীর বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করেছেন মহিউদ্দিন চৌধুরীর পুত্র ও নগর আওয়ামী লীগের সদস্য ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

নাছিরের জন্য ভোট চাইলেন নওফেলশনিবার দিনভর নগরীর ৮নং শুলকবহর ওয়ার্ডের কর্ণফুলী কাঁচাবাজার, তুলাতলি কাঁচাবাজার, পিলখানা কাঁচা বাজার ও ৪নং চান্দগাঁও ওয়ার্ডের বহদ্দার হাট কাঁচাবাজার, পুরাতন চান্দগাঁও থানাস্থ কাঁচাবাজার, বরিশাল কলোনী কাঁচাবাজারে তিনি ব্যাপক গণসংযোাগ করেন।

গণসংযোগকাে ল বিভিন্ন কাঁচা বাজারস্থ সম্মুখ সড়কে অস্থায়ী ট্রাক মঞ্চে পথ সভায় ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন “দেশ যখন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্ব পরিমন্ডলে খ্যাতি স্মারক অর্জন করতে চলেছে, ঠিক তখনই বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে এই চট্টগ্রামের ব্যবসা বাণিজ্যি সারাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করার পরিকল্পনা হয়েছিল। শান্তিপূর্ণ চট্টগ্রামকে পেট্টোল বোমার আঘাতে জর্জরিত করা হয়েছিল সাধারণ জনগণকে, পেট্টোল বোমার আঘাতে খুন করা হয়েছিল চালক ড্রাইভার ভাইদেরকে, আগুনে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছিল সাধারণ মানুষের টাকায় কেনা অসংখ্য গণ পরিবহন, ককটেলের আঘাতে ছিন্নভিন্ন করা হয়েছিল শিশু অন্তু বড়–য়ার মত শিক্ষার্থীর চক্ষু, বিধবা করা হয়েছিল এই চট্টগ্রামের দুই মাসের নববধুকে, পিতার আদর থেকে বঞ্চিত করা হয়েছিল এক মাসের ভুমিষ্ট শিশুকে।”

তিনি আরো বলেন, ‘আপনারা খালেদার জিয়ার এই সকল অপকর্ম সম্পর্কে সকলেই জানেন, আপনারা এইও জানেন চট্টগ্রামের নাশকতার অর্থ সরবরাহ করেছিলেন খালেদা জিয়ারই উপদেষ্টা এই চট্টগ্রামের প্রাক্তন মেয়র মনজুর আলম। সুতরাং চসিক নির্বাচনকে সামনে রেখে এই চট্টগ্রমের মানুষকে আজই সিদ্ধান্ত নিতে হবে আপনারা কি নাশকতাকারীদের মেন্ডেট দিয়ে আবার নগর ভবনে পাঠাবেন নাকি নাশকতার বিরুদ্ধে যারা অবস্থান নিয়েছিল তাদের অগ্রপথিক হিসেবে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা আ.জ.ম নাছির উদ্দিনকে নগর পিতার আসনে অধিষ্ট করবেন?’

নওফেল আরও বলেন, ‘আমার পিতা সাবেক মেয়র এ.বি.মহিউদ্দিন চৌধুরীর তিলে তিলে গড়া এই চট্টগ্রামকে যারা ধ্বংসের পথে নিয়ে গেছেন তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করে আমার পিতার অসমাপ্ত জনউন্নয়ন মূলক কার্যক্রমকে সফলতার শীর্ষ নিয়ে যেতে আ.জ.ম. নাছির উদ্দিনের পক্ষে চট্টগ্রাম বাসীর ভোট প্রার্থনা করতে আমি হাজির হয়েছি।’

ছাত্রলীগের উদ্যোগে দিনব্যাপী গণসংযোগকালে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক হাবিবুর রহমান তারের সভাপতিত্বে উক্ত পথসভায় বক্তব্য রাখেন, মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক ও ওমরগনি এম.ই.এম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্র সংসদের জিএস আরশেদুল আলম বাচ্চু, সাবেক ছাত্রনেতা আবু নাসের চৌধুরী আজাদ, আরশাদ আলী খান রিংকু, নুর উদ্দিন রাসেল, জসিম উদ্দিন, কেন্দ্রীয় সদস্য শওকত আলম,

এসময় আরশেদুল আলম বাচ্চু বলেন, ‘চট্টগ্রামকে একটি সন্ত্রাস, যানজট, জলাবদ্ধতা ও জঙ্গিবাদমুক্ত অসম্প্রদায়িক চেতনার আধুনিক পরিচ্ছন্ন নগরী এবং মহিউদ্দিন চৌধুরী অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করে চট্টগ্রামকে একটি বসবাসযোগ্য আধুনিক মেগাসিটিতে রূপান্তরিত করতে আগামী ২৮ এপ্রিল আ.জ.ম নাছির উদ্দিনকে হাতি প্রতীকে ভোট দিন।’

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি বলে, চট্টলাবাসীর বহু দিনের লালিত স্বপ্ন চট্টগ্রাম হবে একটি বিশ্বমানের আধুনিক শহর। আর সে স্বপ্নের আধুনিক নগরী বাস্তবায়নে আ.জ.ম নাছিরই সময়ের যোগ্য প্রার্থী। তারই হাত ধরে চট্টগ্রাম এগিয়ে যাবে বিশ্বমানের আধুনিক শহরের কাতারে। তাই আগামী ২৮এপ্রিল আ.জ.ম নাছির উদ্দিনকে হাতি প্রতীকে ভোট দিয়ে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করার বিকল্প নেই।

আরও উপস্থিত ছাত্রলীগ নেতা শরফুল আনাম জুয়েল, কামরুল ইসলাম রাসেল, এম. হাসান আলী, সায়েদুর রহমান শাকিল, তোফায়েল আহমদ মামুন, সুলতান মাহমুদ ফয়সাল, নুরুন্নবী শাহেদ, শাহাদাত হোসেন পারভেজ, রফিকুল ইসলাম পাহেল, আবদুল্লাহ আল নোমান, ইমাম হোসেন ইমন, শাহাদাত হোসেন হীরা, আবু সাঈদ মুন্নাসহ প্রমুখ।