‘নাগরিক স্বার্থে হোল্ডিং ট্যাক্স শতভাগ আদায় করা অপরিহার্য’

প্রকাশ:| বুধবার, ৪ মে , ২০১৬ সময় ০৮:২৭ অপরাহ্ণ

চসিক বৈঠক৪ মে বুধবার দুপুরে নগর ভবনে কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৫ম নির্বাচিত পরিষদের অর্থ ও সংস্থাপন বিষয়ক স্থায়ী কমিটি, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক স্থায়ী কমিটি, হিসাব নিরীক্ষা ও রক্ষন বিষয়ক স্থায়ী কমিটি, পানি ও বিদ্যুৎ বিষয়ক স্থায়ী কমিটি, পরিবেশ উন্নয়ণ বিষয়ক স্থায়ী কমিটি, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন বিষয়ক স্থায়ী কমিটি এবং যোগাযোগ বিষয়ক স্থায়ী কমিটি, নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন স্থায়ী কমিটি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। কমিটি সমূহের সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন, স্থায়ী কমিটি সমূহের সভাপতি কাজী শফিউল আলম, শৈবাল দাশ সুমন, মোহাম্মদ মোবারক আলী, মোহাম্মদ জাবেদ, মো. আবদুল কাদের, গোলাম মোহাম্মদ জোবায়ের, জিয়াউল হক সুমন, মো. আবুল হাসেম, মো.সাইফুদ্দিন খালেদ, কমিটির সদস্য কাউন্সিলরবৃন্দ এবং কমিটি সমূহের সদস্য সচিব যথাক্রমে সচিব মো. আবুল হোসেন, শেখ শফিকুল মন্নান ছিদ্দিকী, মো. সাইফুদ্দিন, লে. কর্ণেল মহিউদ্দিন আহমদ, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, এ কে এম রেজাউল করিম সহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় বিগত স্থায়ী কমিটির আলোচ্যসূচি পর্যালোচনা শেষে অনুমোদন, প্রধান দুর্যোগ প্রবন এলাকা চিহ্নিতকরণ, নির্ধারিতস্থানে কোরবানীর পশু জবাই করা, বৃক্ষরোপন, কোচিং সেন্টার সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের যত্রতত্র সাইনবোর্ড ও পোষ্টার ব্যবহার রোধ করা, অস্থায়ী শ্রমিক কর্মরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে তাদের ক্ষেত্রে ১ লক্ষ টাকার স্থলে ২ লক্ষ টাকা অনুদান প্রদান সহ নানা বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভায় সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন স্থায়ী কমিটি সমূহকে শতভাগ কার্যকর করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি হোল্ডিং ট্যাক্স সংক্রান্ত বিষয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনার পরামর্শ দেন। মেয়র বলেন, টিউপ লাইট কারখানা ও প্রিমিয়ার ড্রিংকিং ওয়াটার কারখানাগুলোকে সরেজমিনে তদারকি করে এইদুটি কারখানা পূর্নাঙ্গ চালু করার বিষয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হবে। পরিবহনে নিয়োজিত বাসগুলোকে জনস্বার্থে পূর্নাঙ্গভাবে কাজে লাগানোর লক্ষ্যে স্থায়ী কমিটি সরেজমিনে তদারক করে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। মেয়র বলেন, শতভাগ নাগরিক সেবার স্বার্থে হোল্ডিং ট্যাক্স শতভাগ আদায় করা অপরিহার্য। এ বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে হবে।