নাইক্ষ্যংছড়িতে ১৮দলের বিক্ষোভ মিছিল,সংঘর্ষ আহত–৭

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ০৯:৩২ অপরাহ্ণ

নাইক্ষ্যংছড়িতে ১৮দলের বিক্ষোভ মিছিল,সংঘর্ষ পুলিশসহ আহত–৭২৫ অক্টোবর সারাদেশে ১৮ দলের মহা সমাবেশকে কেন্দ্র করে পার্বত্য বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় বিকাল ৪টায় লাটি হাতে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে এ মিছিল পুরাতন বাসষ্টেন্ট থেকে ঘুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের অফিস অতিক্রম করতে চাইলে নাশকতা এড়াতে পুলিশ বাধা দেয়। ১৮ দলের বেশকিছু নেতা কর্মী ঐ বাধাকে উপেক্ষা করে সামনের দিকে এগোলে পুলিশের সাথে সংর্ঘর্ষ লাগে।
এসময় ঘটনাস্থলে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি সহ গুরুত্বর আহত হয়েছে অন্তত্য ৭ জন ব্যাক্তি। এক পর্যায়ে পুলিশ থেড়ে গেলে ১৮ দলের নেতা কর্মীরা দিক বেদীক ছুটাছুটি করতে লাগে এবং কিছু নেতাকর্মী পার্শবর্তী ধান ক্ষেতে দিয়ে পালিয়ে যেতে চেষ্টা করে। আহতরা হল নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম (পি.পি.এম.), থানার এস আই আনিস, কনেষ্টেবল লিটন দাশ, তোফায়েল আহাম্মদ, মোজাম্মেল হক, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু সুফিয়ান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ ইউনুছ। গুরুত্বর আহতদের মধ্যে ৩জন কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে গতকাল সন্ধ্যায়। অপরদিকে ১৮ দলের সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল চলাকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অংগসংগঠনের নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ে অবস্থান নেয়।
নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৮ দলকে শান্তিপূর্ণ ভাবে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। তবে পুলিশের বাধা উপেক্ষাকরে ছাত্রদেলর নেতারা নাশকতার চেষ্টা চলালে পুলিশ সে সময় বাধা দেওয়ায় তিনি সহ পুলিশের অন্য সদস্যরা এবং ১৮ দলের ২ সদস্য আহত হয়েছে বলে তিনি জানান।
এদিকে পুলিশের সাথে সংর্ঘর্ষের পর শান্তিপূর্ণ ভাবে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে ১৮ দলের সংগ্রাম কমিটির সভাপতি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি উফোছা মার্মার সভাপতিত্বে ও উপজেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সাইফুদ্দিন বাদুরের সঞ্চালনায় বাজার চত্ত্বরে জনসভা সম্পন্ন হয়েছে। এ সময় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা জামায়েত‘র সভাপতি রফিক আহাম্মদ, উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন। উল্লেখ্য ২৫ অক্টোবর সকাল থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি,গর্জনিয়া ও কচ্ছপিয়ায় সকল ধরনের নাশকতা এড়াতে বিজিবির টহল জোরদার ছিল।


আরোও সংবাদ