নগর জুড়ে বিশেষ নজরদারি

প্রকাশ:| সোমবার, ২৬ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে বিশেষ নজরদারিপূর্বাঞ্চলীয় রেলের ডিজেল ওয়ার্কশপ, কারখানা, লোকোশেড, চট্টগ্রাম রেলস্টেশনসহ স্পর্শকাতর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে বিশেষ নজরদারি নিরাপত্তা জোরদার রাখতে নির্দেশনা দিয়েছে রেলওয়ে প্রশাসন। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে হামলা, বিস্ফোরণ, ছিনতাইসহ নাশকতামুলক ঘটনার প্রতিরোধে সর্তকাবস্থার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানান রেলওয়ে পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম। এছাড়াও চট্টগ্রাম নগরীর চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দর, সব বাস টার্মিনাল, চট্টগ্রাম বন্দর, আদালত ভবন, যাত্রীবাহি বিমান, গুরুত্বপূর্ণ তেল স্থাপনাসহ বিভিন্ন পয়েন্টেও নিরাপত্তা জোরদার করেছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ (সিএমপি)।

আজ সোমবার সকাল থেকে বিভিন্ন চেকপোস্টে চলছে তল্লাশীও। একইসাথে জেলার সকল থানা ও পুলিশ ফাঁড়িকে সতর্ক অবস্থায় থাকতে নির্দেশ দিয়েছে সিএমপি। পুলিশ লাইন থেকে পুরো নগরী জুড়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সরকারি বেসরকারি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় তল্লাশি চলছে। রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের জিএম মকবুল আহম্মদ বলেন, বিভিন্ন ধরণের নাশকতারোধে দায়িত্বশীল কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সতর্কাবস্থায় থাকতে বলা হয়েছে। রেলের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায়ও কোন ধরণের দায়িত্ব অবহেলা না করতে নির্দেশনাও রয়েছে নিয়মতান্ত্রিকভাবেই। ধারাবাহিকভাবেই আরএনবি, জিআরপিসহ রেল প্রশাসনের নজরদারি রয়েছে।

চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনার আব্দুল জলিল মন্ডল বলেন, ‘আমরা একটু সতর্কতা নিয়েছি। তাই বিভিন্ন সরকারি স্থাপনায় নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।’
কোনো ধরনের নাশকতা এবং হামলার আশঙ্কা করছেন কিনা এমন প্রশ্নের সরাসরি জবান না দিয়ে তিনি বলেন, ‘একেক সময় একেক রকম গোয়েন্দা রিপোর্টে আসে। তাদের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করেই সতর্কতা নেওয়া হয়েছে।’

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন, অর্থ ও ট্রাফিক) একেএম শহীদুর রহমান বলেন, হামলা হতে পারে বা যাত্রীবাহী বিমান ছিনতাই হতে পারে- আমাদের কাছে এ ধরনের তথ্য আছে। এ জন্য পুরো নগরীতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পরবর্তী নিদের্শ না পাওয়া পর্যন্ত বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা বলবৎ থাকবে। চট্টগ্রাম রেলস্টেশর মাস্টার মাহবুব আলম খান বলেন, উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা আসার সাথে সাথেই স্টেশনে বুক অর্ডার দিয়ে দায়িত্বশীলদের সর্তক থাকতে বলা হয়েছে। স্টেশন এলাকায় কোর ধরনের নিয়মের বাইরে ভিতরে টিকিটবিহীন প্রবেশের ক্ষেত্রেও নজরদারি রাখা হয়েছে।


আরোও সংবাদ