‘ধস থেকে শিক্ষা নিয়ে ব্যাংক খাতকে ঢেলে সাজানো যেতো’

প্রকাশ:| বুধবার, ২ জুলাই , ২০১৪ সময় ০৮:১৩ অপরাহ্ণ

dr yunus1ব্যাংকিং খাতে বিশাল ধস এ খাতের কাঠামো পরিবর্তনের সুযোগ আসলেও তা করা যায়নি বলে বলে মন্তব্য করেছেন নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূস। তিনি বলেছেন এ থেকে শিক্ষাও নেয়া যায়নি। ধস থেকে শিক্ষা নিয়ে এ খাতকে ঢেলে সাজানো যেত। সামাজিক ব্যবসা তহবিল গঠন করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, যেখানে তরুণরা সমাজের সমস্যা চিহ্নিত করে বিভিন্ন্ উদ্যোগ গ্রহণ করবে। বুধবার বেসরকারি ইস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ‘স্যোসাল বিজনেস ইয়ুথ কনভেনশন’ শীর্ষক সেমিনারের সমাপনী অধীবেশনে তিনি এসব কথা বলেন। ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি এবং ইউনূস সেন্টার যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ভিসি অধ্যাপক আবদুর রবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ, ইউনিভার্সিটি ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি ড. এবিএম শহিদুল ইসলাম, প্রো-ভিসি অধ্যাপক আব্দুল হান্নান চৌধুরী, ইউনূস সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক লামিয়া মোর্শেদ।
ড. ইউনূস বলেন, আমাদের পুঁজিবাদী ব্যবস্থায় যার টাকা আছে তাকেই অর্থের জোগান দেয়া হয়। যার টাকা নেই সে সুযোগ পায় না। প্রচলিত ব্যবস্থায় ব্যাংকগুলোও যার অর্থ নেই, তাকে ঋণ দেয় না। এ অবস্থা ভেঙ্গে দিতে হবে। সামাজিক ব্যবসা তহবিল গঠন করতে হবে। সমাজের সমস্যা চিহ্নিত করে তরুণরা যে উদ্যোগ গ্রহণ করবে, এ তহবিল থেকে তাদেরকে সহায়তা করতে হবে। এটি সম্ভব হলে আয়ের বৈষম্য কমবে, বেকারত্ব দূর হবে। এলাকাভিত্তিক সামাজিক ব্যবসা তহবিল গঠন করা হলে সমাজের-মানুষের সমস্যা নিরসন হবে। ফলে সৃষ্টি হবে বেকারবিহীন বিশ্ব, যেখানে গরীব বলে কেউ থাকবে না। তিনি বলেন, আমাদের তরুণরা কিছুটা হতাশ। তার নিজের ভবিষ্যত, সমাজের ভবিষ্যত ঠিকভাবে দেখতে পায় না। সামাজিক ব্যবসার ধারণা তাকে স্বস্তি দিয়েছে। নিজেদের যোগাযোগ-সৃষ্টিশীলতার ক্ষমতা ব্যবহারের সুযোগ তারা এ ব্যবসায় কাজে লাগাতে চায়। এটি বাস্তবায়িত হলে সমাজেও ব্যপক পরিবর্তন আসবে। দেশে-বিদেশে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা নিজেরা উদ্যোগী হয়ে ‘সামাজিক ব্যবসা’ কোর্স পড়তে চাইছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।