ধর্ষকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

প্রকাশ:| সোমবার, ১০ আগস্ট , ২০১৫ সময় ০৬:০৬ অপরাহ্ণ

আতিকুর রহমান আতিক,গাজীপুর
গাজীপুরে শিশু ধর্ষণের দায়ে এক ধর্ষককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও বিশ হাজার টাকার জরিমানার দন্ড দিয়েছেন আদালত।

১০ আগস্ট সোমবার দুপুরে গাজীপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক ধর্ষককে এ দন্ড দেন।

সাজাপ্রাপ্ত ধর্ষকের নাম মো. সোহেল খান (২৪)। সে গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার আজমতপুর দক্ষিনপাড়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে।

নারী ও শিশু আদালতের স্পেশাল পিপি এডভোকেট শাহজাহান খান আমাদের গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি মুহাম্মদ আতিকুর রহমান আতিককে জানান, স্থানীয় আজমতপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী (৮) গত ২০১৩ সালের ২ জুলাই দিবাগত রাতে নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিল। রাত আড়াইটার দিকে ওই ছাত্রী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে তার বাবা-মার সঙ্গে ঘরের বাইরে বের হয়। সেই ফাঁকে চুপিসারে সোহেল খান ওই ছাত্রীর ঘরে প্রবেশ করে লুকিয়ে থাকে। পরে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে ওই ছাত্রীর মুখে চেপে ধরে বাড়ির পাশের জমিতে নিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটির চিৎকার শুনে তার দাদা এগিয়ে গেলে সোহেল পালিয়ে যায়।

পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে গাজীপুর সদর হাসপাতালে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। এ ব্যাপারে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় মামলা করেন। এর পর পুলিশ সোহেল খানকে গ্রেফতার করে।

ওই থানার এসআই ইয়াসিন আলী তদন্ত শেষে সোহেল খানকে অভিযুক্ত করে ওই বছরের ২ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

পিপি শাহজাহান খান আরো জানান, এ মামলায় ৯ জন স্বাক্ষ্য প্রদান করেন। অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক সৈয়দ জাহেদ মনসুর আসামী সোহেল খানকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও বিশ হাজার টাকার জরিমানার দন্ড দেন।