দ্রুতগতির ইন্টারনেট : ২০১৭ সালের মধ্যে

প্রকাশ:| শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ০৮:৪৮ অপরাহ্ণ

ইন্টারনেট
‘২০১৭ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে দ্রুতগতির ইন্টারনেট’

২০১৭ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে দ্রুতগতির ইন্টারনেট পৌঁছে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার বিকেলে গণভবন থেকে উপজেলা ডিজিটাল মেলা ও ইন্টারনেট সপ্তাহ- ২০১৫ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বক্তব্য রাখেন তিনি।

ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার মাধ্যমে দেশের কৃষকরা লাভবান হচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে অনেকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। তবে এর ব্যবহারের মাধ্যমে সামাজিক অবক্ষয় যেন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখার আহ্বান জানান তিনি।

বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে বলে আশাব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার বেশ কিছু প্রকল্প হাতে নিয়েছে। আশা করি এবার ঘরে ঘরে দ্রুতগতির ইন্টারনেট পৌঁছে দেয়া সম্ভব হবে। ২ হাজার ২৫০টি ইউনিয়ন ফাইবার অপটিক্যালের আওতায় আসবে। আর ইতোমধ্যে বিটিসিএল ১ হাজার ইউনিয়নে ফাইবার অপটিক্যাল ক্যাবল দেয়ার কাজ করছে। আশা করি ২০১৭ সালের মধ্যে ৪ হাজার ৫শ’ ইউনিয়নে দ্রুতগতি ইন্টারনেট পৌঁছে দিতে সক্ষম হবো।

তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে দেশকে উন্নতির পথে নিয়ে যাবো। তবে একটি জিনিসকে খেয়াল রাখতে হবে, এর অপব্যবহারের মাধ্যমে যেন দেশে সামাজিক অবক্ষয় না হয়। ইন্টারনেটের কোনো রকম অপব্যবহার যেন না হয় সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ইন্টারনেটের দাম জনগণের নাগালের মধ্যে নিয়ে আসতে ইন্টারনেটের দাম কমানো হয়েছে। মোবাইল অপারেটরগুলোকে আহ্বান জানাই তারাও যেন গ্রাহক পর্যায়ে দাম কমিয়ে আনতে কার্যকর ভূমিকা নেয়।

ঢাকা ছাড়াও দুটি বিভাগীয় শহরে বড় বড় প্রদর্শনীসহ দেশের ৪৮৭টি উপজেলায় একযোগে শুরু হওয়া এই ইন্টারনেট উইক চলবে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

ডিজিটাল এ প্রযুক্তি ব্যবহারে আইন হচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যাতে প্রযুক্তির অপব্যবহার না হয় সেজন্য আইন হচ্ছে। প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার করে আমাদের সমাজের উন্নয়ন করতে হবে। এটার ব্যবহার যেন আমাদেরকে ক্ষতির দিকে না নেয়।

তিনি বলেন, ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে অনেক মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। সরকার কর্মসংস্থানে কাজ করে যাচ্ছে।