দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করুন-আহমদ শফী

প্রকাশ:| বুধবার, ৪ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ০৮:৫৯ অপরাহ্ণ

শাহ আহমদ শফীদেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী হাসিনাকে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবি মেনে নিয়ে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ তৈরির আহ্বান জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী।
বুধবার বিকালে গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে আল্লামা শফী বলেন, বর্তমানে দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতা, খুন-খারাবি, অর্থনৈতিক অস্থিরতা ও চরম নিরাপত্তাহীন পরিস্থিতি বিরাজ করছে।
প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সমগ্র জাতির দৃষ্টি এখন আপনার প্রতি। দেশের এই সংকটময় মুহূর্ত থেকে উত্তরণের লক্ষ্যে দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে নিরপেক্ষ সরকারের দাবি মেনে নিয়ে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ তৈরির অনুরোধ করছি। কারণ, রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অধিকর্তা হিসেবে এ ব্যাপারে আপনার দায়দায়িত্ব সর্বাধিক।

আল্লামা শফী বলেন, বৃহৎ রাজনৈতিক দলগুলোর পরস্পর বিপরীতমুখী অবস্থানের কারণে নাগরিকদের জানমালের নিরাপত্তা চরম হুমকির মুখে পড়েছে। তাদের মতভেদের কারণে মানুষ খুন হচ্ছে। সহিংসতার শিকার হচ্ছে।

হেফাজতের আমীর বলেন, রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে দ্রব্যমূল্য ধরাছোঁয়ার বাইরে। অগণিত মানুষ খেয়ে-না খেয়ে দিনাতিপাত করতে বাধ্য হচ্ছে। খেটে খাওয়া শ্রমিক থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী, শিল্পপতিসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ কর্মহীন ও নিঃস্ব হয়ে পড়ছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতেও প্রচুর প্রাণহানির ঘটনা ঘটছে।

তিনি বলেন, পবিত্র ইসলাম ধর্ম হচ্ছে শান্তির ধর্ম। ইসলামে সন্ত্রাস ও জোর-জুলুমের যেমন স্থান নেই, তেমনি অপকৌশলের আশ্রয় নিয়ে অন্যায়ভাবে ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করারও সুযোগ নেই। ইসলাম সব সময় অন্যায়-অবিচার ও জুলুম-অত্যাচারের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কঠোর।

আল্লামা শফী বলেন, বর্তমান দেশের নৈরাজ্যকর পরিস্থিতিতে ইসলামের একজন খাদেম ও দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে চুপ থাকতে পারছি না। বিবেকের তাড়না থেকেই সকল পক্ষকে একটা যৌক্তিক ও গ্রহণযোগ্য সমাধানে এসে দ্রুত দেশের স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আমি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি। কারণ এভাবে হানাহানি চলতে থাকলে সামাজিক ও অর্থনৈতিক কাঠামো ভেঙ্গে পড়ার পাশাপাশি দেশের স্বাধীনতাও মারাত্মক হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দেবে।

তিনি আরো বলেন, গত কিছু দিন আগে প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট বলেছিলেন, তিনি দেশের শান্তি ও স্থিতিশীলতা চান, প্রধানমন্ত্রীর পদ চান না। প্রধামনমন্ত্রীর এই বক্তব্য সর্বমহলে অত্যন্ত প্রশংসিত ও সমাদৃত হয়েছেন।

চলমান সংকট কাটিয়ে দেশে শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরে আসার জন্য আগামী ৬ ডিসেম্বর সকল মুসলমানের প্রতি নফল রোযা পালন এবং ওই দিন বাদ জুমা দেশের সকল মসজিদে সর্বস্তরের তৌহিদী জনতাকে নিয়ে মহান আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ জানিয়ে প্রার্থনা করার জন্য উলামা-মাশায়েখ ও মসজিদের খতীব সাহেবগণের প্রতি বিবৃতিতে আহ্বান জানান তিনি।