দেশ এখন বসবাসের অযোগ্য, সরকার নির্বিকার

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৮ আগস্ট , ২০১৪ সময় ০৮:২৬ অপরাহ্ণ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, দেশে প্রতিদিন খুন-গুম হচ্ছে। দেশ এখন বসবাসের অযোগ্য। সরকার নির্বিকার। মানুষ এ অবস্থার পরিবর্তন চায়। মানুষ চায় এরশাদস্বস্তি ও শান্তি। বৃহস্পতিবার বিকালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে জাতীয় যুব সংহতি আয়োজিত ঢাকা মহানগর জাপার নতুন আহ্বায়ক সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি এডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়াকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কড়া সমালোচনা করে এরশাদ বলেন, কয়েকদিন পর পর লন্ডন থেকে রাজপুত্র , যুবরাজ বাণী দেন। সেই বাণীর বিরুদ্ধে আবার বক্তব্য দেয়া হয়। কয়েকদিন আগে বাণী দিলেন। বললেন, সরকার কুলাঙ্গার। আওয়ামী লীগের ৬ জন মন্ত্রী প্রতিক্রিয়া দিলেন। আমি শুধু বলবো, ‘সূই তোর পিঠে ছিদ্র কেনো। সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদ বলেন,আমাদের ওপর অনেক অত্যাচার হয়েছে। একটা কথা আছে, আল্লাহ সীমালঙ্ঘনকারীকে পছন্দ করেন না। ২০০৭ সালের নির্বাচনের আগে তারেক রহমান বলেছিলেন, এরশাদ সাহেবকে জেলে নেবো, কম্বল দিয়ে সাধারণ কয়েদিদের সঙ্গে রাখবো। এরশাদের ঠিকানা জেলখানা। এখন কে জীবন্ত লাশ! তা দেখতে পাচ্ছি। তিনি বলেন, জাতীয়তাবাদী কারা। যারা মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী, ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী তারাই জাতীয়তাবাদী। জামায়াত-বিএনপি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী না। সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধ করবেন না। আলোচনা করে কমিশন গঠন করুন। তা না হলে বিপদ হতে পারে। সত্য কথা বলতে দিন। সমালোচনা করার ক্ষমতা অর্জন করুন। এরশাদ বলেন, প্রতিদিন খুন-গুম হচ্ছে। সরকার নির্বিকার। দেশ বসবাসের অযোগ্য। মানুষ পরিবর্তন চায়। মানুষ চায় স্বস্তি ও শান্তি ফিরে আসুক। তিনি বলেন, আমরা একটা সমাজে বসবাস করি। এই সমাজের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব কার? সরকারের। রাতে মানুষকে জবাই করা হচ্ছে। সরকার কি জবাব দেবে। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে। দেশ বসবাসের অযোগ্য। জাতীয় যুব সংহতির সাধারণ সম্পাদক ও সংবর্ধনা বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক বেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন পানিসম্পদ মন্ত্রী ও জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবুল কাশেম, সালমা ইসলাম এমপি, এস এম ফয়শল চিশতী, এমএ হান্নান, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভ’ঁইয়া, যুগ্ম মহাসচিব নুরুল ইসলাম নুরু, ছাত্র সমাজের সভাপতি ইফতেখার আহসান হাসান।