দেশের ইতিহাসে প্রথম জাতিসংঘ মিশনে দুই নারী বৈমানিক

প্রকাশ:| রবিবার, ২৬ নভেম্বর , ২০১৭ সময় ১০:০৪ অপরাহ্ণ

ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট নাইমা হক এবং ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট তামান্না-ই-লুতফী। এ দু’জন বিরল কৃতিত্বের অধিকারিণী নিজেদের নাম লেখালেন বাংলাদেশের ইতিহাসে। প্রথমবারের মতো জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যোগ দিতে কঙ্গো যাচ্ছেন বিমানবাহিনীর এই দুই নারী বৈমানিক।

 

রবিবার আন্তঃবাহিনী পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। এদিন বিমানবাহিনীর ঘাঁটি বাশারে সোমবার কঙ্গোগামী ব্যান এয়ার সদস্যদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আবু এসরার। এ সময় তিনি সততা, পেশাদারিত্ব ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনার আহ্বান জানান।

 

জানা যায়, এবার বিমানবাহিনীর মোট ৩৫৮ শান্তিরক্ষী আফ্রিকার কঙ্গোতে যাচ্ছেন। পর্যায়ক্রমে কয়েকটি দলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় তারা ওই দেশে পাড়ি জমাবেন।

 

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১৭ ডিসেম্বর যশোরে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর ঘাঁটি বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান এ সলো টেস্টে সফলতা দেখিয়ে সামরিক পাইলট হিসেবে স্বীকৃতি পান নাইমা হক ও তামান্না-ই-লুতফী।