দুষ্প্রাপ্য পাখি রক্ষায় সাফল্য

প্রকাশ:| সোমবার, ১৫ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৪:৪২ অপরাহ্ণ

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাখিরা আজ ভাল নেই। বৈশ্বিক উষ্ণতার ফলে আবহাওয়া পরিবর্তন, নানাবিধ প্রাকৃতিক দুর্যোগ-দুর্বিপাক, paki_56444সর্বোপরি চোরাকারবারীদের অবৈধ শিকার ও পাচারের ফলে ইতিমধ্যে অনেক পাখি পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হয়ে গেছে। অনেক পাখি বিলুপ্তির পথে। এসব দুষ্প্রাপ্য পাখির জাত রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত পাখি বিশেষজ্ঞ ড. আবদুল ওয়াদুদ। ২২/২, হাতীরপুলে অবস্থিত তার ব্যক্তিগত মিনি চিড়িয়াখানায় বিশ্বের ৮৭টি দেশের প্রায় ৫০০ প্রজাতির দুর্লভ পাখির জাত রক্ষায় সার্বক্ষণিক গবেষণা ও কাজ চলছে।

১৯৯৭ সাল থেকে তিনি তিলে তিলে মিনি চিড়িয়াখানাটি গড়ে তুলেছেন। বিভিন্ন দেশের পাখির জন্য ভিন্ন-ভিন্ন ধরনের বসবাস উপযোগী পরিবেশ গড়ে তোলা হয়েছে। ইতিমধ্যে অনেক পাখি নিয়মিত ডিম থেকে বাচ্চা দিয়েছে। বাংলাদেশে প্রথম অনেক বিদেশি দুর্লভ পাখি ডিম থেকে বাচ্চা ফুটিয়েছে তার চিড়িয়াখানায়। উল্লেখযোগ্য, পাখির মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার আমাজান জঙ্গলের পাখি স্কারলেট ম্যাকাও, ব্লু-গোল্ড ম্যাকাও, হ্যানস ম্যাকাও, সাউথ আফ্রিকার গ্রে-প্যারট, অস্ট্রেলিয়ার কিং প্যারট, আলেকজান্ডার প্যারাকিট, রেইনবো লরি, কাইক, ইলেকটাস প্যারট, ইন্দোনেশিয়ার কাকাতুয়া, নিকারাগুয়ার হেরিংগার্ল, ভিয়েতনামের ফিজেন্ট, আমেরিকার লেডি-আমহাষ্ট প্রভৃতি।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি