দুর্দান্ত খেলে জিতলো ঢাকা আবাহনী

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ০৮:২৪ অপরাহ্ণ

ঢাকা আবাহনী ৩ – ২ করাচি ইলেক্ট্রিক

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টশেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে উদ্ধোধনী ম্যাচে জয় পেয়েছে ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। করাচি ইলেক্ট্রিক ক্লাবকে তারা হারিয়েছে ৩-২ গোলে। ম্যাচে ফিরতে অনেক চেষ্ঠাই করেছিল অতিথি দলটি। কিন্তু হারের তিক্ত স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। ম্যাচের প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে ঢাকা আবাহনী দ্বিতীয়ার্ধে আরও একটি গোলের দেখা পায়। তবে এ অর্ধে দু’টি গোলও হজম করতে হয় তাদের।
এর আগে খেলার প্রথম ও চতুর্থ মিনিটে আক্রমণ করে ব্যর্থ হন আবাহনীর নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে। তবে ২৩ মিনিটে আর হতাশ হতে হয়নি আকাশী-হলুদ শিবিরের সমর্থকদের। মুক্তিযোদ্ধা থেকে ধারে খেলতে আসা ওয়ালী ফয়সাল আবাহনীর সমর্থকদের মুখে হাসি ফুটিয়ে তুলেন। বক্সের ঠিক বাইরে থেকে দারুন এক ফ্রি কিকে সরাসরি করাচির জালে বল পাঠিয়ে দরকে এগিয়ে নেন ওয়ালী ফয়ছাল (১-০)। মাত্র সাত মিনিটেরে ব্যবধানে গোল ব্যবধান দ্বিগুন করেন সানডে চিজুবা। ইমন বাবুর পাসে দারুন এক হেডে করাচির গোলরক্ষক গোলাম নবীকে পরাস্ত করেন (২-০)।
প্রথমার্ধে অসাধারন ফুটবল উপহার দিলেও দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল ধানমন্ডির দলটি। আর এ সুযোগটাকেই কাজে লাগিয়ে ম্যাচে ফেরার ঈঙ্গিত দেয় করাচির ইলেক্ট্রিক ক্লাব। ম্যাচের ৭৫ মিনিটে অতিথি দলটির মুহাম্মদ রাসুল গোল করেন (২-১)। তবে তিন মিনিটের মধ্যেই আবারো এগিয়ে গিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয় আবাহনী। তবে এ গোলটি এসেছে আতœঘাতি খাত থেকে। ওয়ালী ফয়ছালের ফ্রি কিক রুখতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল ঠেলে দেন পাকিস্তানী এ ডিফেন্ডার (৩-১)। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে অবশ্য গোল ব্যবধান আরেকটু কমিয়ে আনে করােচি ইলেক্ট্রিক। পেনাল্টি থেকে গোলটি করেন আবাযুমি সানডে (৩-২)।
দলের এমন জয়ে দারুন খুশী আবাহনীর কোচ অমলেশ সেন, বলেন, ‘খেলার প্রথমার্ধে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টআমাদের খেলোয়াড়রা দুর্দান্ত খেলেছে। অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী হওয়ায় দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল হজম করতে হয়েছে। এছাড়া দ্বিতীয়ার্ধে খেলোয়াড়দের কিছুটা ক্লান্ত মনে হয়েছে।’ অন্যদিকে এ টুর্নামেন্টকে অভিজ্ঞতা অর্জনের বড় একটি টুর্নামেন্ট হিসেবে দেখছেন পাকিস্তানে ক্লাবটির কোচ মাজিদ শফিক, তিনি বলেন, ‘এটাই আমাদের প্রথম কোন আন্তর্জাতিক ফুটবল আসর খেলতে আসা। তাই এখান থেকে আমরা অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করছি।