দিনদুপুরে সীতাকুন্ড ইকোপার্ক এ ১২পর্যটকের সব ছিনতাই

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৬ মে , ২০১৪ সময় ০৮:৪১ অপরাহ্ণ

সীতাকুন্ড ইকোপার্ক পরিদর্শন করতে দিনদুপুরে ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন টিকে শিপইয়ার্ডের ১২জন কর্মকর্তা। শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ছিনতাইকারীরা এ সময় নগদ ১ লাখ ৮৫ হাজার টাকা ও ২১ টি বিভিন্ন মডেলের মোবাইল, চারটি ক্যামেরাসহ সাড়ে তিন লাখ টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়।

টিকে শিপইয়ার্ডের ব্যবস্থাপক মো. আরা মিয়া ফকির জানান, নগরীর হালিশহরে প্রতিষ্ঠানের এক শীর্ষ কর্মকর্তার ছোটভাইয়ের বিয়ে উপলক্ষে মুন্সীগঞ্জের মেঘনাঘাটের অবস্থিত টিকে শিপইয়ার্ড থেকে ৩টি গাড়ি নিয়ে সকালে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হন তারা।

যাওয়ার পথে বিকাল পৌনে ৪টার দিকে সীতাকুন্ড ইকোপার্ক পরিদর্শন করতে গাড়ির টিকেট কেটে ভিতরে ঢোকেন। ইকোপার্কের ভেতর কিছুদূর যাওয়ার পর রাস্তার উপর গাছের গুঁড়ি ফেলে ৬ থেকে ৭ জন সশস্ত্র ছিনতাইকারী তাদের হাইয়েস মাইক্রোবাসটি আটকে দেয়।

আরা মিয়া বলেন, এসময় ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে ড্রাইভার মকবুল ও কোম্পানির সাইট ইঞ্জিনিয়ার মামুন শিকদারকে আঘাত করে গাড়িতে থাকা ১২ পর্যটকের কাছ থেকে নগদ ১ লাখ ৮৫ হাজার টাকা, ২১টি বিভিন্ন মডেলের মোবাইল, ৪টি ক্যামেরা, ১ টি স্বর্ণের চেইন ও ৪টি আংটি ছিনিয়ে নেয়।

সীতাকুন্ড ইকোপার্কের গেইটের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা কামাল ও রাসেলের কাছে অভিযোগ করলে তারা সহায়তা না করে উল্টো ভিতরে যাওয়ার দোষারোপ করে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, অথচ তাদের কাছ থেকেই আমরা টিকেট কেটে পার্কের ভিতরে প্রবেশ করেছি। বিষয়টি ইকোপার্কের রেঞ্জ কর্মকর্তাকেও জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

পরে বিষয়টি সীতাকুণ্ড থানায় জানানো হলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলে জানান তিনি।

ছিনতাইয়ের ঘটনার কথা স্বীকার করে সীতাকুন্ড থানার সহকারী পরিদর্শক মোহাম্মদ জামাল বলেন, খবর পেয়ে আমরা টিকে শিপইয়ার্ডের কর্মকর্তাদের নিয়ে আশেপাশের পাহাড়ে অভিযান চালিয়েছি। কিন্তু কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরোও সংবাদ