দলীয় প্রতীকে পৌর নির্বাচনের অধ্যাদেশ জারি

প্রকাশ:| সোমবার, ২ নভেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

দলীয় প্রতীকে পৌর নির্বাচনের অধ্যাদেশ জারিদলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) নির্বাচন আয়োজনে অধ্যাদেশ জারি করেছে সরকার।

সোমবার রাতে এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশ জারি করা হয়।

ডিসেম্বরে পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠানের সময় নির্ধারিত থাকায় সংশোধিত স্থানীয় সরকার আইনটি পৌরসভার নির্বাচনের ক্ষেত্রে অধ্যাদেশ আকারে জারি করা হয়েছে। পরে এটি সংসদে আইন আকারে পাস করানো হবে।

এ প্রসঙ্গে ইসি সচিব সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমরা জানতে পেরেছি, অধ্যাদেশ জারি হয়েছে। এটি সংগ্রহ করবে নির্বাচন কমিশন। এরপর তা পর্যালোচনা করে নির্বাচনের বিধিমালা, প্রার্থী আচরণবিধিমালা চূড়ান্ত করা হবে। তফসিল ঘোষণা করা হবে নভেম্বরে।

গত ১২ অক্টোবর দলীয়ভাবে নির্বাচনের বিধান রেখে মন্ত্রিসভা পাঁচটি স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের আইন সংশোধনের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়।

আইনগুলো হচ্ছে— স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) সংশোধন আইন, ২০১৫; উপজেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১৫; জেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১৫; স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) সংশোধন আইন, ২০১৫ এবং স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) সংশোধন আইন, ২০১৫।

এসব আইনের আওতায় পর্যায়ক্রমে ৩২৩টি পৌরসভা, চার হাজার ৫৫৩টি ইউনিয়ন পরিষদ, ৪৮৮টি উপজেলা, ১১টি সিটি করপোরেশন ও ৬৪টি জেলা পরিষদ নির্বাচন দলীয়ভাবে হবে।

নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর মনোনীত প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা স্থানীয় সরকার নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।দলীয় প্রার্থীরা নিজ নিজ দলের প্রতীকে নির্বাচন করতে পারবেন।

এর আগে সোমবার দুপুরে মেয়াদোত্তীর্ণ পৌরসভার নির্বাচন সঠিক সময়ে করা সম্ভব হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ।

তিনি বলেছিলেন, ‘দু-চার দিনের মধ্যে অধ্যাদেশ না পেলে নতুন আইনে পৌরসভা নির্বাচন করা সম্ভব হবে না। এমনও হতে পারে, আমরা সঠিক সময়ে নির্বাচন করতে পারছি না। যেকোনো নির্বাচন করতে ৪০ থেকে ৪৫ দিন সময় লাগে। কাজেই দুই-চার দিনের মধ্যে যদি আইনটি না পাওয়া যায়, তাহলে ডিসেম্বরে নতুন আইনে পৌরসভা নির্বাচন করা সম্ভব হবে না।’

সোমবার রাতে দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) নির্বাচন সংশোধন আইনটি অধ্যাদেশ আকারে জারি হওয়ায় সঠিক সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়টি চূড়ান্ত হলো।


আরোও সংবাদ