দরিদ্র পরিবারের সহায় সাজিনা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৮ আগস্ট , ২০১৪ সময় ১১:২০ অপরাহ্ণ

দরিদ্র পরিবারের ছেলে মেয়েদের বিনা বেতনে শিক্ষা উপকরন, টিফিন বক্স, পোষাক, ছাতা দিয়ে লেখাপড়া শেখাচ্ছে সাজিনা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়
শফিউল আলম, রাউজান ঃ রাউজান পৌর এলাকার ৬ নং ওয়ার্ডের সুলতান পুর ছিটিয়া পাড়া এলাকায় রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরী নানার কাচারী ঘরে ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্টা করেন অবদুল হাকিম চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় । অনেক ঘাত প্রতিঘাতের মধ্যে এই বিদ্যালয়টি বন্দ্ব হওয়ার আশংকা দেখা দেয় ২০১১ সালে । এই সময়ে রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর ভাগিনা সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগী ফরহাদ গণি চৌধুরী নয়ন এগিয়ে আসেন । ফরহাদ গণী চৌধুরী নয়নের অর্থায়নে সুলতান পুর ছিটিয়া পাড়া এলাকায় সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরী সুলতান পুর ছিটিয়া পাড়া এলাকায় রাউজান নোয়াপাড়া সড়কের পার্শ্বে ছাদেকের পুল এলাকায় ৪৩ শতক জমি ক্রয় করে জমিটি মাটি ভরাট করে ভাগিনা ফরহাদ গণী চৌধুরী নয়নের মাতা সাজিনা চৌধুরীর নামে সাজিনা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় নির্মান করেন । ২০১২ সাল থেকে সাজিনা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে দরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে, বই, খাতা, কলম, স্কুলের পোষাক, বর্ষাকালে স্কুলে আসার জন্য ছাতা, দুপুরের টিফিন আনার জন্য টিফিন বক্স প্রদান করেন । এছাড়া ও এই বিদ্যালয় থেকে যে সব শিক্ষার্থী এস এস সি পাশ করে কলেজে ভর্তি হয় তাদের ডিগ্রি পর্যন্ত লেখাপড়ার খরচ বহন করেন স্কুল পরিচলনা কমিটির সহ সভাপতি ফরহাদ গণি চৌধুরী নয়ন । স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরী জানান, স্কুলে দরিদ্র পরিবারের একশত ৬৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে । একশত ৬৫ জন শিক্ষার্থীকে প্রধান শিক্ষক সহ দশ জন শিক্ষক । দুইজন চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী সহ শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতন প্রদান করেন শিক্ষানুরাগী ফরহাদ গণি চৌধুরী নয়ন । গত ৭ জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার সময় সাজিনা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে ঈদ পুনমিলনী অনুষ্টানে ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাতা, টিফিন বক্স বিতরন করা হয় । স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি রাউজান পৌর সভার সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাজু কুমার শীলের পরিচালনায় অনুষ্টানে বক্তব্য রাখেন সাবেক চেয়ারম্যান সংঘপ্রিয় বড়–য়া, মুক্তিযোদ্বা সাহাবুউদ্দিন হায়দার চৌধুরী, সাংবাদিক মীর আসলাম, শফিউল আলম, প্রদীপ শীল, শিক্ষক অশোক কুমার তালুকদার, হাবিবুল জাকেরিয়া রাসেল, তপন দে, আবদুল মান্নান সওদাগর প্রমুখ ।অনুষ্টানে স্কুলের একশত পাচঁছয়ট্টি জন শিক্ষার্থীর হাতে বর্ষার মৌসুমে স্কুলে আসা যাওয়ার জন্য ছাতা ও দুপুরের খাওয়ার আনার জন্য টিফিন বাক্স তুলে দেওয়া হয় । দরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীরা ছাতা ও টিফিন বাক্স পেয়ে আনন্দে মেতে উঠে । অনুষ্টানে অভিবাবক ও অভিবাবিকেরা ও উপস্থিত ছিলেন ।


আরোও সংবাদ