দরবারে মুসাবিয়ায় বার্ষিক ওরশ স্থগিত

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:১৪ অপরাহ্ণ

হাটহাজারীর দরবারে মুসাবিয়ার আগামী ২১ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য বার্ষিক ওরশ স্থগিত করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্ব) প্রশাসনের সাথে দুই ওয়ারিশের প্রতিনিধিদের  বৈঠকে এ সিন্ধামত্ম গ্রহন  করা হয়েছে।

বৈঠক সূএে জানা যায়,দরবারে মুসাবিয়ার দুই ওয়ারিশের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত কর্তৃত্ব নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের কারনে ওয়ারিশদের মধ্যে বড় মেয়ে শামসুল নুরম্নল মুনির সিদ্দিকা দীর্ঘদিন  দরবারের বাহিরে ছিল। গত ৩১ আগষ্ট দুই ওয়ারিশ মুখামুখী হলে উভয় পক্ষক্ষর মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। সংবাদ পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার হাটহাজারী সার্কেল মো:মশিউদৌলস্নাহ রেজা ,সহকারী কমিশনার (ভুমি) প্রসূণ কুমার চক্রবর্তী ও থানার ওসি মো: ইসমাইল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অকুস্থলে গিয়ে উত্তেজনা নিরসন করে। এসময় পুলিশ ৩২ জনকে আটক করে। ঘটনার নিস্পত্তির জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে গত ২ সেপ্টেম্বর উভয় পক্ষকে নিয়ে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বৈঠক করে। বৈঠকে দুই ওয়ারিশরের কাগজপত্র জমা দেওয়ার সময় সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। কাগজ পত্র জমা দেওয়ার পর গত ১৩ সেপ্টেম্বর প্রশসনের পক্ষ থেকে আবারও দুই ওয়ারিশের ৫ জন করে প্রতিনিধি নিয়ে বৈঠক করে কাগজপত্র যাচাইয়ের পর বিগত বছর দুয়েক আগে জনৈক গোলাম হোসেন ১৭ জনকে সুনিদিষ্ট ও অজ্ঞাত নামা বেশ কিছু এলাকাবাসীকে আসামী করে মামলা করে ছিল তা প্রত্যহার এবং এলাকাবাসীর পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা করে দেওয়ার সিন্ধামত্ম হয়।মামলা নিস্পত্তির কাগজ পত্র বিজ্ঞ আদালতে জমা দিলে ও মামলার ধার্য্য তারিখ ৫ অক্টোবর নিধারিত থাকায় নিস্পত্তির ব্যাপারে আদালতের পক্ষ থেকে কোন সিন্ধামত্ম আসেনি। তাছাড়া দুই ওয়ারিশের মধ্যে বড় ওয়ারিশ বৈঠকে উপস্থিত থাকলেও ছোট ওয়ারিশ নিজে উপস্থিত না থাকার  ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার বৈঠকে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর অনুষ্টিতব্য বার্ষিক ওরশ  প্রশাসনের বৈঠকে স্থগিত করা হয়। দরবার এলাকায় অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকায় পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। বৈঠকে উভয় ওয়ারিশের ৫ জন করে ১০ জন উপস্থিত ছিল।তাছাড়া প্রশাসনের পক্ষক্ষ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম চৌধুরী,নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোয়াজ্জম হোসাইন,সহকারী কমিশনার (ভুমি)প্রসূণ কুমার চক্রবর্তী,সহকারী পুলিশ সুপার হাটহাজারী সার্কেল মো:মশিউদৌল্লাহ রেজা,থানার ওসি মো:ইসমাইল,স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাত ওসমান প্রমূখ।