দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির বিকল্প নেই’

প্রকাশ:| শনিবার, ২৩ মে , ২০১৫ সময় ১১:৩৯ অপরাহ্ণ

বিশ্বায়নের যুগে পরিবর্তিত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করার কোন বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান।

শনিবার সকালে নগরীর পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির দেয়া সংবর্ধনায় সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ইউজিসি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান বলেন, ‘বিশ্বায়নের যুগে পরিবর্তিত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করার কোনো বিকল্প নেই। এজন্য পোর্ট সিটি বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের অন্যান্য সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে।’

মঞ্জুরি কমিশনকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তদারককারী প্রতিষ্ঠান উল্লেখ করে ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সরকার কর্তৃক প্রণীত আইনী কাঠামোর মধ্যে থেকে কাজ করতে হবে এবং একাডেমিক মানোন্নয়নের দিকে নজর দিতে হবে।’

অনুষ্ঠানের শুরুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের পক্ষ থেকে নবনিযুক্ত ইউজিসি চেয়ারম্যানকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। শনিবার একই অনুষ্টানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘সামার-২০১৫’ ট্রাইমেস্টারে ভর্তিকৃত নবীন শিক্ষার্থীদেরও বরণ করে নেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফ এবং চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন= বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট একেএম এনামূল হক শামীম এবং প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান জহির আহমেদ।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ওবায়দুর রহমান। ট্রাস্টি বোর্ডের পক্ষে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. মজিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নূরল আনোয়ার ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট একেএম এনামূল হক শামীম তাঁর বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা থেকে শুরু করে গত দুই বছরে অর্জিত বিভিন্ন অগ্রগতির কথা তুলে ধরে বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠান শেষে সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. নূরল আনোয়ার বলেন, ‘পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে একটি আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে আমরা বদ্ধপরিকর। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ড, শিক্ষক, কর্মকর্তা সকলে আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ট্রাস্টি বোর্ডের সম্মানিত সদস্য প্রফেসর ড. নিজামুল হক ভুইয়া, জসিম উদ্দিন, মিজানুর রহমান, মাহাফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, টিপু সুলতান, আলী আজম স্বপন, ডা. আশরাফুল হক, খান মো. আকতারউজ্জামান, বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ, একাডেমিক এডভাইজর ড. আবু তাহের, সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন প্রফেসর মফজল আহমেদ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. সেলিম হোসেন, প্রক্টর আসিফ মাহবুব করিম, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

প্রসঙ্গত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিবিএ, এমবিএ, এলএলবি, ইংরেজি, সাংবাদিকতা, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, ফ্যাশন ডিজাইন এন্ড টেকনোলজিসহ বিভিন্ন বিভাগের ২২ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি প্রদান করা হয়।