থানায় মাথা ফাটাল মাদ্রাসা ছাত্র

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৭:০৬ অপরাহ্ণ

বোয়ালখালী প্রতিনিধি : বোয়ালখালী থানায় মাথা ফাটাল হোসাইন মুহাম্মদ শামসুল হক আরাফাত (১৪) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্র। আরাফাত উপজেলার সারোয়াতলীর ইমামুল্লাচর গ্রামের নেছারুল হকের ছেলে। সে খিতাপচর আজিজিয়া মাবুদিয়া মাদ্রাসায় ৫ম শ্রেণির ছাত্র।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে গুরুতর আহত অবস্থায় আরাফাতকে পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে উপ-সরকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার সঞ্জয় সেন।
আরাফাতকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া থানার উপ-পরিদর্শক পীযুষ চন্দ্র সিংহ বলেন, স্থানীয় লোকজন পাগলামীর কারণে আরাফাতকে বৃহস্পতিবার সকালে থানায় নিয়ে আসলে সে দেয়ালে মাথা টুকে নিজেকে নিজে আহত করে। এরপর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ও তার বাবাকে বুঝিয়ে দেয়া হয়।
তবে আরাফাত জানায়, গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাড়ী দিকে যাওয়ার সময় একটি টেক্সী করে ৩জন লোক গতিরোধ করে থানায় নিয়ে আসে। এরপর সারারাত থানাহাজতে আটকে রাখে পুলিশ।
পরদিন বৃহস্পতিবার দুপুরে এতে রাগ করে থানা হাজতের লোহার গ্রিলে মাথা দিয়ে সজোরে আঘাত করলে মাথা ফেটে যায় বলে জানায় আরাফাত।
খিতাপচর আজিজিয়া মাবুদিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুর রহীম জানান, মাদ্রাসার ৫ শ্রেণির ছাত্র। সে দু’বার প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অকৃর্তকার্য হয়।


আরোও সংবাদ