প্রোটিয়াদের বিশ্ব রেকর্ড, ভারতের রেকর্ড হার

প্রকাশ:| রবিবার, ২৫ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ১০:৪২ অপরাহ্ণ

আগের চার ম্যাচে দুটি করে জিতেছে দুই দল। ফলে সিরিজে সমতা ২-২ ব্যবধানে। সিরিজ নির্ধারণী পঞ্চম ম্যাচটি তাই রুপ নিয়েছিল অলিখিত ফাইনালে। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ভারতের বিরুদ্ধে রান পাহাড়ে চড়ে বসেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তিন সেঞ্চুরিতে প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৪৩৮ রান। সেঞ্চুরি করেছেন ডি কক, ডু প্লেসিস ও ডি ভিলিয়ার্স।

তিন সেঞ্চুরিতে প্রোটিয়াদের রানের পাহাড়এমন এক ম্যাচ, যেটি দেখতে দেখতে রেকর্ড বইয়ের পাতা উল্টাতে হয়েছে বেশ কয়েকবার। প্রথম ভাগে এত এত সব রেকর্ড যে ম্যাচে, তার শেষটাও যে রেকর্ড গড়েই হবে, তা আর আশ্চর্য কি! আজ সিরিজ নির্ধারণী খেলায় দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ২১৪ রানে হেরেছে স্বাগতিক ভারতীয় দল। আর এই জয় দিয়েই ভারতের মাটিতে প্রথমবারের মতো ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিল প্রোটিয়ারা।
মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে রানের বন্যা বইয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যানরা। তিন-তিনজন ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ৪৩৮ রানের পাহাড়সম স্কোর। জবাব দিতে নেমে প্রথম থেকেই পিছিয়ে পড়েছিল ভারত। স্কোরবোর্ডে ২২ রান উঠতেই আউট রোহিত শর্মা। কিছুক্ষণ পরেই ফিরে যান বিরাট কোহলিও। তৃতীয় উইকেট জুটিটাই যা একটু আশা দেখাচ্ছিল ভারতীয় দলকে। শিখর ধাওয়ান ও অজিঙ্কা রাহানের ১১২ রানের জুটিতে অসম্ভবকে সম্ভব করার স্বপ্নও উঁকি দিচ্ছিল দর্শকদের মনে। কিন্তু তখনই মঞ্চে আবির্ভাব কাগিসো রাবাদার। ধাওয়ানের ইনিংসটিকে ৬০ রানেই থামিয়ে দেন তিনি। অবশ্য এই আউটে রাবাদার চেয়ে হাশিম আমলার কৃতিত্বই বেশি। ঝাঁপিয়ে পড়ে দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিয়েছেন আমলা।
কিছুক্ষণ পরেই সুরেশ রায়নার আউটের পর ভারতের হার একরকম নিশ্চিত হয়ে যায়। এর পরও লড়ে গেছেন রাহানে। অন্য প্রান্তে ধোনি থাকায় স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শকেরাও আশা ছাড়েনি। মাত্র ২৫ ওভারে ১৮০ রান তুলে রান রেটের হিসাবেও লড়াইয়ে ছিল ভারত। কিন্তু দলকে ১৮৫ রানে রেখে ডেল স্টেইনের বলে আউট হয়ে যান রাহানে। ৯ চার ও ৩ ছক্কায় সাজানো ৫৮ বলে ৮৭ রানের স্বভাব বিরুদ্ধ এক ইনিংস খেলে যখন ফিরছেন রাহানে, তখন কেবল একটি প্রশ্নের উত্তরই বাকি ছিল—কত রানে হারছে ভারত? উত্তর পেতে সময় লাগেনি। রাহানে আউট হওয়ার পর দশ ওভারও টিকতে পারেনি ভারতীয় দল। ১৪ ওভার বাকি থাকতেই ম্যাচ শেষ। ২২৪ রানে অলআউট হয়ে ২১৪ রানে হার—দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের সবচেয়ে বড় পরাজয়।
আরেকটি রেকর্ড! রেকর্ডময় এক ম্যাচের আদর্শ পরিণতিই বটে।