তারেক রহমানের জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়েই সরকারি শিষ্ঠাচার বহির্ভুত বক্তব্য

প্রকাশ:| সোমবার, ২ জুন , ২০১৪ সময় ০৯:১৩ অপরাহ্ণ

তারেক রহমানের জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়েই সরকারি শিষ্ঠাচার বহির্ভুত বক্তব্যতারেক রহমানের রাজনৈতিক প্রজ্ঞা এবং জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়েই সরকারি দলের মন্ত্রী এমপিরা তার নামে রাজনৈতিক শিষ্ঠাচার বহির্ভুত বক্তব্য দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন নগর বিএনপির সভাপতি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, তারেক রহমানের যৌক্তিক এবং দালিলিক প্রমাণসহ দেওয়া বক্তব্যের বিপরীতে সঠিক জবাব দিতে না পেরে হতাশা থেকে তারা এই ধরণের বক্তব্য দিচ্ছে। তারেকের বিরুদ্ধে কোন অপপ্রচার বাংলাদেশের জনগণ সহ্য করবেনা।

সোমবার বিকেলে নগরীর নাসিমন ভবনে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। জিয়াউর রহমানের ৩৩তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে নগর মহিলা দল এ সমাবেশের আয়োজন করে।

খসরু বলেন, জিয়াউর রহমান আওয়ামী লীগকে রাজনীতিতে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন, শেখ হাসিনাকে দেশে ফিরিয়ে এনেছিলেন। সেই আওয়ামী লীগ নেতারাই এখন জিয়াউর রহমানের নামে অশালীন বক্তব্য দিচ্ছেন।

সমাবেশে সাবেক সাংসদ বেগম রোজী কবির বলেন, এই সরকার নারীদের অধিকার ভুলুণ্ঠিত করেছে। সর্বোচ্চ আদালত প্রাঙ্গণে নারী আইনজীবীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় পুরো জাতি লজ্জিত।

নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগ যতবারই ক্ষমতায় এসেছে ততবারই দেশে হত্যা আর লুটের মহোৎসব চলেছে। দেশে গণতন্ত্র হত্যা করে বাকশাল কায়েম হয়েছে।

নগর মহিলা দলের সভাপতি মনোয়ারা বেগম মণির সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জেলী চৌধুরীর সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বিএনপি নেতা এম এ আজিজ, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আব্দুল মান্নান রানা, মহিলা দল নেত্রী রাহেলা জামান, ফরিদাতুন্নেসা তাহমিনা, খালেদা বোরহান, শাহানা বেগম মিনা, আমেনা
বাতেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

দেশপ্রেম আর দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন
দেশপ্রেম আর দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন পরিকল্পনা হাতে নিয়ে স্বনির্ভর ও মর্যাদা সম্পন্ন জাতি গঠনে জিয়ার আন্তরিকতা পুরো জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করতে সক্ষম হয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আসলাম চৌধুরী।

তিনি বলেন, জিয়ার দেশ পরিচালনায় যুবসমাজের অংশগ্রহণ এবং প্রশিক্ষিত কর্মী বাহিনী সৃষ্টির যে লক্ষ্যমাত্রা পরিলক্ষিত হয়েছিল তা বাস্তবায়ন করা গেলেই দেশের উন্নতি এবং সমৃদ্ধি সম্ভব।

সোমবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। জিয়াউর রহমানের ৩৩তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল এ সভার আয়োজন করে।

উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক হারুনুর রশিদের সভাপতিত্বে যুগ্ম-আহবায়ক মো. সেলিম চেয়ারম্যানের সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উত্তর জেলা বিএনপি’র সদস্য সচিব কাজী আবদুল্লাহ আল হাছান, কৃষকদল কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ হালিম, ইসহাক কাদের চৌধুরী, নুরুল আমিন, সাথী উদয় কুসুম বড়ুয়া, আব্দুল আওয়াল চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।