তারেক রহমানের কারাবন্দি দিবসে যুবদলের বিক্ষোভ

প্রকাশ:| সোমবার, ৬ মার্চ , ২০১৭ সময় ১১:৪৯ অপরাহ্ণ

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান জননেতা জনাব, তারেক রহমানের ১১তম কারাবন্দি দিবস উলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের উদ্যোগে ৬ মার্চ লে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল সভাপতি কাজী বেলালের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন দিপ্তীর সঞ্চালনায় এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী, যুবদলে সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, যুবদল নেতা নুর আহমদ গুড্ডু, আজমল হুদা রিংকু, শাহেদ আকবর, আবু মুসা, ইকবাল হোসেন সংগ্রাম, আব্দুল কাদের জসিম, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সদস্য ফজলুল হক সুমন, নুর হোসেন নুরু, আসাদুর রহমান টিপু, হেলাল হোসেন, এইচ.এম. আজাদ, আজাদ বাঙ্গালি, হাজী মোঃ ইদ্রিচ, আব্দুল বাতেন, রাসেল নিজাম, শাহাদাত হোসেন ওয়াসিম, মাহবুবুর রহমান, হুমায়ুন কবির, শাহজালাল পলাশ, আসাদুর রহমান রুবেল, মজিবুর রহমান রাসেল, কামরুল ইসলাম, মনোয়ার হোসেন মানিক, মোঃ জাহাঙ্গীর, সাইফুল ইসলাম শুভ, মোঃ মুন্না, মোঃ আরিফ, আহাদ আলী সায়েম, মোঃ পারভেজ, মোঃ লিটন, মোঃ সরওয়ার, মোঃ মুসা, রাজু খান, গোলাফ রহমান, আব্দুচ সাত্তার, ফরহাদ হোসেন, মোঃ রমজান, জসিম মিয়া, মোঃ নওশাদ, মোঃ শাহেদ, নাজির আকন, মোঃ নবী, মোঃ কাউসার, জাবেদ আলী, চাঁন মিয়া, মোঃ জসিম ও জয় প্রমুখ।
সমাবেশে প্রধান অতিথি আবুল হাশেম বক্কর বলেন, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ২০০৭ সালের ৭ মার্চ তৎকালীন সেনা সমর্থিত সেনা নিবাসের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে অনেক মিথ্যা মামলা দেওয়া ও অনেক অপপ্রচার করা হয়েছে। কিন্তু তারা ও তাদের বেনিপেশিয়ারীরাসহ দশ বছরেও একটি মামলা প্রমাণ করতে পারেনি। তাকে রাজনীতি থেকে দূরে সরানোর জন্য এ চক্রান্ত শুরু হয়েছিল। বাংলাদেশের রাজনীতিতে একেবারে রাজনীতি শুন্য করা দেওয়া পরিক্ষীত রাজনীতিকদেরকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য ১/১১ এ এ চক্রান্ত হয়েছিল। এভাবে তারেক রহমান জিয়া পরিবার ও বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য একই ভাবে আজো ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।