তাওয়াজ্জুহ্ বিশিষ্ট সিলসিলা তরিকতের এক অনন্য সোপান

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৮ এপ্রিল , ২০১৪ সময় ০৯:২৮ অপরাহ্ণ

রাউজান পোষ্ট অফিস সম্মুখস্থ ময়দানে এশায়াত মাহফিলে অধ্যক্ষ ছৈয়্যদ মুনির উল্লাহ্
তাওয়াজ্জুহ্ বিশিষ্ট সিলসিলা তরিক্বত জগতের এক অনন্য সোপান
শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধি: কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের মহান মোর্শেদ আওলাদে রাসূল হযরতুলহাজ্ব শাহছুফি অধ্যক্ষ আল্ল¬ামা ছৈয়্যদ মুহাম্মদ মুনির উল্ল¬াহ্ আহমদী মাদ্দাজিল্লুহুল আলী বলেছেন, ইসলামের সূচনা থেকেই তাওয়াজ্জুহ্র ধারাবাহিকতা বিদ্যমান। হাদীসে পাকের বর্ণনামতে মিরাজ রজনীতে আল্লাহ তায়ালা তার প্রিয় হাবীব (দঃ) এর কাঁধ মোবারকে কুদরতী হাত রেখে তাওয়াজ্জুহ দিয়ে ছিলেন। প্রিয় নবী (দঃ) হযরত ওসমান বিন আবীল আচের বক্ষে হাত রেখে, হযরত ওমর (রাঃ) এর হাত ধরে এবং হযরত আবু হোরায়রা (রাঃ) এর আম্মাজানকে আপন দরবারে বসে তাওয়াজ্জুহ্ দান করেছিলেন। সুতরাং তাওয়াজ্জুহ্ তরিক্বত জগতের অন্যতম মৌলিক বিষয়। তাওয়াজ্জুহ্ বিশিষ্ট সিলসিলা তরিক্বত জগতের এক অনন্য সোপান। তাওয়াজ্জুহ্ নিয়ে আত্মা শুদ্ধ না করে শুধু বায়আত গ্রহন করলে বায়াতের মর্যাদা রক্ষা করা যায়না। তাই তিনি মুসলিম মিল্লাতকে যুগের গাউছুল আজমের সিনা মোবাররক থেকে তাওয়াজ্জুহ্ মাধ্যামে নবীজির নূরে বাতেন গ্রহন করে আত্মাকে শুদ্ধ করার আহবান জানান।
তিনি গতকাল ১৮ এপ্রিল শুক্রবার রাউজান পোষ্ট অফিস সম্মুখস্থ ময়দানে হযরত ছিদ্দিকে আকবর (রা:) এর ওরশে পাক উপলক্ষে মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ১নং শাখার উদ্যোগে আয়োজিত এশায়াত মাহফিলে উপস্থিত হাজার হাজার জনতার উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।
তিনি আরও বলেন, যুবসমাজকে কোরআন-সুন্নাহর পথে ফিরিয়ে আনতে আশির দশকে শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ সংস্কারক কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের মহান মোর্শেদ আওলাদে মোস্তফা খলীফায়ে রাসূল হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম মাদ্দাজিল্লুহুল আলীর তাজওয়াজ্জুহ্বিশিষ্ট তরিক্বতকে বিশ্বময় ছড়িয়ে দিয়ে মুসলিম জাতিকে এহসান করার মানসে গঠন করেন অরাজনৈতিক আধ্যাত্মিক সংগঠন মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ সংগঠন যুব সমাজের মনন ও চিন্তা-চেতনায় আধ্যাত্মিকতার বিকাশ ঘটিয়ে তাদের পারলৌকিক কল্যাণ সুনিশ্চিত করার কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে।
রাণির হাট ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যাপক মুহাম্মদ অলি আহাদ, বিশিষ্ট সমাজ সেবক মুহাম্মদ ওবাইদুল হান্নান সুরুজ, উপাধ্যক্ষ আল্লামা জাফর আহমদ ছিদ্দিকী, মাস্টার মুহাম্মদ সোলায়মান প্রমুখ।
এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এম. এ. মাদরাসার উপাধ্যক্ষ আল্লামা মুহাম্মদ বদিউল আলম আহমদী, মুহাদ্দিস আল্লামা মুফতি কাজী মুহাম্মদ আনোয়ারুল আলম ছিদ্দিকী, মাওলানা মুহাম্মদ সেকান্দর আলী প্রমুখ। মাহফিলে প্রধান আলোচক ছিলেন সংগঠনের মহাসচিব অধ্যাপক মুহাম্মদ ফোরকান মিয়া।
মিলাদ-কিয়াম শেষে প্রধান অতিথি দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দরবারের প্রতিষ্ঠাতা কাগতিয়ার গাউছুল আজমের দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন।