তরুণীকে গণধর্ষণ,জড়িত থাকার অভিযোগে এক ছাত্রলীগ কর্মী আটক

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:১৭ অপরাহ্ণ

ধর্ষণমিরসরাইয়ে অপহরণের পর এক তরুণীকে গণধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগের বেশ কজননেতাকর্মী। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ মো. দিদার নামে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে আটক করেছে।

বুধবার রাতে উপজেলার করেরহাটে দক্ষিণ অলিনগরের গহীন পাহাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ রাত আড়াইটার দিকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে জোরারগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার মো. আলমগীর জানান, গণধর্ষনের ঘটনায় ধর্ষিতার ভাই জসীম উদ্দিন বাদী হয়ে সাতজনকে এজহারভূক্ত ও অজ্ঞাতনামা ৩ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ফেনীর মহিপালের হাজারীরাডের মধ্যম ছারিপুর গ্রামের এক তরুণী তার জেঠাতো ভাই জসীম উদ্দিনকে সঙ্গে নিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার করেরহাট নয়টিলা মাজার জিয়ারত করতে আসেন। ফেরার পথে লক্ষীচরা ব্রিজ এলাকায় এলে সংসদ সদস্য (এমপি) ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন সমর্থিত করেরহাট ছাত্রলীগ সভাপতি অহিদুন্নবী শোভন, দিদার, লিটন, সবুজ, জিয়া, সাজু, শরীফসহ ৮/১০ জন কর্মী তাদের পথ আটকায়।

এসময় তারা তরুণীর ভাই জসীম উদ্দিনের কাছ থেকে নগদটাকা, মোবাইল সেট ছিনতাই করে বেদম প্রহার করে। পরে তারা তরুণীকে অপহরণ করে নিয়ে যায় দক্ষিণ অলিনগরের গহীন পাহাড়ে। সেখানে তাকে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মাঈনুর ইসলাম রানার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি মুঠোফোন রিসিভ করেননি।


আরোও সংবাদ