তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া এদেশে কোনো নির্বাচন করতে দেয়া হবে না

প্রকাশ:| শনিবার, ১২ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:৩৮ অপরাহ্ণ

fakrul-মির্জা ফখরুলনির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া এদেশে কোনো নির্বাচন করতে দেয়া হবে না বলে আবারও হুশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ শনিবার বিকেলে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়ায় উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিএনপি আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জনগণ সরকারের শক্ত হাতও ভেঙে দিতে জানে বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, সরকার বিএনপির আন্দোলনকে শক্ত হাতে দমন করার হুমকি দিয়ে আসছে। কিন্তু এ দেশের জনসাধারণ শক্ত হাত কী সেটা জানে। ২৪ অক্টোবরের পর যদি কোনো রকম বাড়াবাড়ি করা হয় তবে জনসাধারণ শক্ত হাত ভেঙে দেবে। অহিংস আন্দোলনের মধ্য দিয়ে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা পুনরায় চালু করতে বাধ্য করা হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ একক নির্বাচন করার দিবাস্বপ্ন দেখছে। আওয়ামী লীগের মন্ত্রী ও এমপিরা নিজ নিজ পদে থেকে নির্বাচন করতে চায়। ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে জনসাধারণের ভোটাধিকারকে খর্ব করে তামাশার নির্বাচন করে আবার ক্ষমতায় যেতে চায়। কিন্তু তাদের সেই দিবাস্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে। তা বাস্তবায়িত হবে না। নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকারের অধীন ছাড়া এদেশে কোনো সাজানো নির্বাচন করতে দেবে না জনগণ।

ফখরুল বলেন, ভারত থেকে লাখ লাখ গরু আমদানি করে সরকার কোরবানির বাজারে ছেড়েছে। ফলে গরু ছাগল পালনকারী ক্ষুদ্র কৃষকরা কোরবানির বাজারে পানির দামে গরু-ছাগল বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন।

সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আনোয়ার হোসেন লালের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি আমজাদ হোসেন, আখতারুজ্জামান মিঞা, মোজাহার হোসেন, জেড মর্তুজা চৌধুরী তুলা, যুবদল কেন্দ্রীয় নেতা ফরহাদ হোসেন আজাদ, সাধারণ সম্পাদক তৈমুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক পয়গাম আলী, যুগ্ম-সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ, সদর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, জেলা যুবদল আহ্বায়ক চৌধুরী মহিবুল্লাহ আবু নূর প্রমুখ।