টেরিবাজারে গাড়ি পার্কিংকে কেন্দ্র করে আন্দরকিল্লা-লালদিঘী সড়ক অবরোধ

প্রকাশ:| বুধবার, ২৪ জুলাই , ২০১৩ সময় ১০:২৭ অপরাহ্ণ

newschittagong24.com ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান নিউজচিটাগাং২৪কে বলেন, ‘দোকানের সামনে গাড়ি পার্কিংকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বাসিন্দা ও টেরিবাজার ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছি।পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সহযোগীতা করছে।
মোটর সাইকেল পার্কিংকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামের টেরিবাজার এলাকায় স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বুধবার রাতে মোটর সাইকেল পার্কিংকে কেন্দ্র করে টেরিবাজারের দোকান কর্মচারীরা দু’টি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ভাংচুর করেছে। তারা আন্দরকিল্লা-লালদিঘী সংযোগ সড়ক অবরোধ করে রেখেছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ও টেরিবাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা চেষ্টা করে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে টেরিবাজারের সাজগোজ স্টোরের সামনে সঞ্জয় নামের এক যুবক মোটর সাইকেল পার্কিং করেন। এ নিয়ে দোকান মালিকের সঙ্গে স্থানীয় কাটাপাহাড়ের বাসিন্দা মিন্টুর কথা কাটাকাটি হয়। এতে পাশের রাজস্থান শপিং সেন্টারের কর্মচারীরাও জড়িয়ে পড়েন।

পরে সমিতির নেতারা সন্ধ্যা পর্যন্ত দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। কিন্তু এ নির্দেশ অমান্য করে বিকেলে রাজস্থান শপিং সেন্টার খোলা রাখা হয়। এ খবর পায় স্থানীয় লোকজন শপিং সেন্টারে হামলা করে। এর জের ধরে উভয়পক্ষের মধ্যে কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

তারাবী নামাজ থাকায় এ মুহূর্তে বৈঠকে বসা সম্ভব হচ্ছে না। তবে রাত ১১টায় উভয় পক্ষের মধ্যে সমাঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। আশা করি তখন ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে।